বাংলাদেশ, , শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

খুটাখালীতে অবৈধ ৭ দোকানঘর গুড়িয়ে দিয়েছে বন বিভাগ

আলোকিত কক্সবাজার ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০১৫-০৯-২২ ১৬:২১:৫৪  

চকরিয়া প্রতিনিধি॥

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে বনবিভাগের জায়গার উপর নির্মিত অবৈধ ৭ পাকা দোকানঘর গুড়িয়ে দিয়েছে বন বিভাগ। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ইউনিয়নের সেগুন বাগিচা নুরানী বাজারে এ উচ্ছেদ অভিযান চালায় খুটাখালী বনবিট কর্মকর্তা মো: আবদুর রাজ্জাক। এসময় স্থানীয় বন বিভাগের কর্মকর্তা ও ১৫/২০ জন ভিলেজার উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেন। অভিযানে নেতৃত্বদানকারী বিট কর্মকর্তা আবদুর  রাজ্জাক জানিয়েছেন বিগত ৩মাস পূর্বে রাতে আধারে স্থানীয় প্রবাসি মো: ইউছুপ বন বিভাগের জায়গার  উপর অবৈধ ভাবে ৭ টি পাকা দোকানঘর নির্মাণ করেন। বিষয়টি বন বিভাগের নজরে আসলে এ উচ্ছেদ চালানো হয়। তিনি আরো জানান একাধিক অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা কাজী মুকাম্মেল কবির ও কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের ডিএফও ডা. শাহী ই আলমের নির্দেশে ২য় দফায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় খুটাখালী বন বিটের বন প্রহরী আবদুল মজিদ মোল্লা, নূর নবী, মনজুরুল ইসলামসহ প্রায় ২০ জনের অধিক ভিলেজার উচ্ছেদ কার্যক্রমে অংশ নেয়।

জানা গেছে অবৈধ এ দোকান ঘর নির্মাণের কারণে বন বিভাগ দু দুটি মামলা দায়ের করেছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ সেপ্টেম্বর চকরিয়া পেকুয়ার সহকারী পুলিশ সুপার মো: মাসুদ আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। অন্যদিকে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে গত ৩০ জুলাই ও ৯ আগষ্ট চকরিয়া থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়।

ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা কাজী মুকাম্মেল কবির জানায় ধারাবাহিক উচ্ছেদ কার্যক্রমের এটি অংশ মাত্র। ঈদের পরে পূনরায় অবৈধ ঘর ও বসতি উচ্ছেদ করা হবে।

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা ড. শাহী ই আলম বন বিভাগ এলাকায় পর্যায়ক্রমে সকল অবৈধদের উচ্ছেদ করা হবে বলে জানান।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
                                       
ফেইসবুকে আমরা