সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

সৈকত বালিকার সম্বর্ধনা

সৈকত বালিকার সম্বর্ধনা

অনলাইন বিজ্ঞাপন

বার্তা পরিবেশক
কক্সবাজার শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী সৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সম্বর্ধনা অনুষ্ঠিত হয় ২৫ জানুয়ারি সোমবার সকাল ১১ ঘটিকার সময়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সৈকত বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পিটিএ কমিটির সভাপতি আবুল কাসেম বলেন, বিগত এক যুগ ধরে বিদ্যালয়ের পাসের হার শতকরা ৯০ ভাগের উপরে। শিক্ষকদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন এ হার অবশ্যই ধরে রাখতে হবে। সাথে সাথে জিপিএ ৫ এর সংখ্যা আরো বাড়াতে হবে।

এজন্য শিক্ষক-অভিভাবক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে অবশ্যই সমন্বয় রাখতে হবে। বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক এম এ মানিক  শিক্ষার্থীদের  পরীক্ষার হলে প্রবেশ থেকে শুরু করে কিভাবে পরীক্ষা শেষ করবে তা নিয়ে বিস্তারিত পরামর্শ দেন।সিনিয়র শিক্ষক সাইফুদ্দিন খালেদ শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষার চর্চা করার জন্যপরামর্শ দেন।
তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে হলে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি অবশ্যই শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। সভাপতির বক্তব্যে অত্র বিদ্যালয়ের সুযোগ্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সমর চন্দ্র দেবনাথ বলেন, আমাদের বিদ্যালয়ের সাফল্যের পেছনে শিক্ষকদের পাশাপাশি বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সকল সদস্যসহ
অভিভাবকদের যথেষ্ঠ আন্তরিকতা রয়েছে। প্রয়োজনের আমরা তাদের সহযোগিতা পেয়েছি। এজন্য আমরা তাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। তিনি  শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের সবাইকে জিপিএ ৪ এর উপরে পেতে হবে। আমাদের নির্ধারিত শিক্ষার্থীদের জিপিএ ৫ পেতে হবে। এজন্য পরীক্ষা চলাকলীন সময়গুলোতে বেশিবেশি চর্চা করতে হবে। ঐ সময়ও প্রয়োজনে আমাদের সকল শিক্ষক যাবতীয় সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত। তিনি সকল শিক্ষার্থীদের শতভাগ সফলতা কমনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য হোসনে আরা বেবি, বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক/শিক্ষিকাবৃন্দ, অভিভাবক, ও অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীবৃন্দ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM