শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৮:২৯ অপরাহ্ন

এবার দল শক্তিশালী করবে আ’লীগ

এবার দল শক্তিশালী করবে আ’লীগ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

আলোকিত কক্সবাজার ডেক্স

পৌর নির্বাচনের ব্যস্ততার পর এবার দল শক্তিশালী করার দিকে মনোনিবেশ করছে আওয়ামী লীগ। প্রথমেই সম্পন্ন করবে কাউন্সিল। আগামী ফেব্রুয়ারি বা মার্চের দিকে ২০তম জাতীয় কাউন্সিল হবে বলে আশা করছেন দলটির নেতারা।

দলের কাউন্সিল, ঢাকা মহানগর কমিটি ঘোষণাসহ দলকে শক্তিশালী করতে করণীয় নির্ধারণ করতে আগামী ৯ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ওই কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে বিভিন্ন বিষয়ে সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন বাংলানিউজকে বলেন, পৌর নির্বাচনের বিজয়ের পর সবাই এখন উৎসব করছে। আগামী ৯ তারিখে কাউন্সিলসহ সব বিষয়ে আমরা চিন্তা ভাবনা করবো।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ গেছে। শিগগির আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। এ বিষয়ে আগামী ৯ জানুয়ারি কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে আলোচনা হবে।

তিনি বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারি বা মার্চের দিকে কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে।

কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানান তিনি।

গত ২৯ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের তিন বছর মেয়াদ পূর্ণ হয়। এর আগে ২০১২ সালের ২৯ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী প্রতি তিন বছর পর জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান।

গত ১১ সেপ্টেম্বর দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় ডিসেম্বরে জাতীয় সম্মেলনের সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু পৌর নির্বাচনের কারণে কাউন্সিল পিছিয়ে যায়।

দ‍ুর্বল বিরোধী জোটের বিপরীতে আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মধ্যে যেন গা ছাড়া ভাব না আসে সেদিকে সর্তক দৃষ্টি রাখছে আওয়ামী লীগ। পৌর নির্বাচনে তৃণমূলের চাঙাভাব অটুট রাখতে চায় দলটি। সে জন্য করণীয় ঠিক করবে আওয়ামী লীগ। এ বিষয়েও ৯ তারিখের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে আলোচনা হবে বলে জানা যায়।

দলের সাংগঠনিক কাজে গতি নিশ্চিতের পাশাপাশি দলের ঝিমিয়ে পড়া নেতা-কর্মীদের সক্রিয় করা হবে। দলকে শক্তিশালী করার যাবতীয় উদ্যোগ নেবে দলটি।

আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষ নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের বিপরীতে কোনো শক্তিশালী গণতান্ত্রিক দল নেই। তাই বলে আমাদের নেতা-কর্মীরা যাতে ঝিমিয়ে না পড়ে সেদিকে নজর রাখা হবে।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতের যে কোনো প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য দলকে সবসময় প্রস্তুত রাখার ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যাতে কেউ দেশে কোনো অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির চেষ্টাটাও করতে না পারে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM