শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন

জি-৩ রাইফেলসহ আরসার গান গ্রুপ কমান্ডার জাকারিয়া গ্রেফতার

জি-৩ রাইফেলসহ আরসার গান গ্রুপ কমান্ডার জাকারিয়া গ্রেফতার

অনলাইন বিজ্ঞাপন

ছবি- র‌্যাবের হাতে গ্রেফতর জাকারিয়া।

 

ওয়াহিদুর রহমান রুবেল।।

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে অত্যাধুনিক একটি জি-৩ রাইফেল ও ৫ রাউন্ড তাজা গুলিসহ রোহিঙ্গাদের সশস্ত্র সংগঠন আরসা’র গান গ্রুপ কমান্ডার জাকারিয়াকে (৩২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৫। বৃহস্পতিবার রাতে কুতুপালং ক্যাম্প-১০ এ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জাকারিয়া ক্যাম্প-১০, ব্লক-এফ/১৭ এর বাসিন্দা মৃত আলী জোহর এর ছেলে।

শুক্রবার সকালে র‌্যাব-১৫ এর হেডকোয়াটার্সে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১৫ এর অধিনায়ক লে: কর্ণেল সাজ্জাদ হোসেন বলেন, পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘর্ষে লুণ্ঠিত অস্ত্র ক্রয় করে বাংলাদেশে আনছে আরসা সন্ত্রাসীরা। এমন তথ্যের ভিত্তিতে ক্যাম্প এলাকায় গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ায়। ১৩ জুন র‌্যাব জানতে পারে নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ভারি অস্ত্র নিয়ে রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১০ এ অবস্থান করছে আরসার সশস্ত্র ক্যাডার। এমন তথ্যের ভিত্তিতে রাতে সেখানে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালায়নের সময় মোঃ জাকারিয়া নামে একজনকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জাকারিয়া নিজেকে আরসার গান গ্রুপ কমান্ডার হিসেবে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কিলিং মিশনে অংশগ্রহণ করেন বলে স্বীকার করেছেন। পরে তার দেয়া তথ্য মতে, পালংখালী ইউনিয়নের পুটি বিল নামক স্থানে অভিযান চালিয়ে কিলিং মিশনে ব্যবহৃত একটি জি-৩ রাইফেল ও ৫ রাউন্ড তাজা এ্যামুনিশন উদ্ধার করা হয়। ২০২৩ সালের শেষের দিকে ক্যাম্প-১০ এর ব্লক-এফ/১৭ এর ব্লক কমান্ডার হিসেবে নিয়োগ পান বলেও জানান সে।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব কর্মকর্তা আরও জানান, ২০২২ সালে সীমান্তের ঘুমধুম জিরো পয়েন্টে গোয়েন্দা সংস্থা ও র‌্যাবের মাদকবিরোধী যৌথ অভিযানের সময় হামলা চালায় আরসা সন্ত্রাসীরা। তাদের হামলায় গোয়েন্দা সংস্থার একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তাও নিহত হন। এ ঘটনার পর গ্রেফতার এড়াতে মিয়ানমারে পালিয়ে যায় জাকারিয়া। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার বাংলাদেশে প্রবেশ করে এবং গান গ্রুপ কমান্ডার হিসেবে বিভিন্ন কিলিং মিশন ও অপরাধমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করছে।

গ্রেফতারকৃত জাকারিয়ার বিরুদ্ধে উখিয়া থানায় বিভিন্ন অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক ( ল িএন্ড মিডিয়া) মো: আবু সালাম চৌধুরী।

উল্লেখ্য, র‌্যাবের সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে আরসার সামরিক কমান্ডার, আরসা প্রধান নেতা আতাউল্লাহর দেহরক্ষীসহ ১১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তাদের কাছ থেকে ৫৩.৭১ কেজি বিস্ফোরক, ৫টি গ্রেনেড, ৩টি রাইফেল গ্রেনেড, ১০টি দেশীয় তৈরী হ্যান্ড গ্রেনেড, ১৪টি বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র, ৫৬টি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ১৭৮ রাউন্ড গুলি/কার্তুজ, ৬৭ রাউন্ড খালি খোসা, ৪টি আইডি ও ৪৮টি ককটেল উদ্ধার করা হয়।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM