বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

বিএনপি এখন অদৃশ্য শক্তির উপর নির্ভর হয়ে পড়ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিএনপি এখন অদৃশ্য শক্তির উপর নির্ভর হয়ে পড়ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন বিজ্ঞাপন

ছবি-গণমাধ্যমের সাথে কথা বলছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

ওয়াহিদুর রহমান রুবেল।।

নির্বাচন মিস করে বিএনপি এখন অদৃশ্য শক্তির উপর নির্ভর করা শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

রবিবার (১২ মে) বিকেলে কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সাথে ব্রিফিংকালে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে চৎমকার, এই সম্পর্কে আরও উচ্চতায় নিয়ে যেতে বাংলাদেশে আসছে ডোনাল্ড লু। আমাদের চেষ্টা থাকবে এ সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার।

ড. হাসান মাহমুদ বলেন, মায়ানমারের অভ্যন্তরে চলা সংঘর্ষের ফলে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা শিবিরে কোন ধরণের হুমকি নেয়। সেদেশের সেনারা পালিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। আন্তর্জাতিক নিয়ম মেনে তাদের স্বদেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। গেলো কয়েকদিনে আরও ১৩৮ জন এসেছে। তাদেরকেও নিয়ম মেনে স্বদেশে ফেরত পাঠানো হবে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, রোহিঙ্গাদের কারণে আমাদের সবদিকেই সমস্যা হচ্ছে। তবে, উখিয়া-টেকনাফের ৩৩টি আশ্রয় ক্যাম্প সীমান্ত থেকে দূরে হওয়ায় রাখাইনের সংঘাতের প্রভাব এখানে পড়ছে না। সব ধরণের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড কঠোর হাতে দমন করা হচ্ছে। এরপরও অন্যদেশের বোঝা আমরা দীর্ঘদিন মাথায় নিয়ে থাকতে পারি না। এদের নিয়মতান্ত্রিক পন্থায় প্রত্যাবাসনে প্রচেষ্টা অব্যহত রয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির দ্বিতীয় সভা উপলক্ষে কক্সবাজারে অবস্থান করছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সকল সদস্য।

এরআগে রবিবার সকালে ক্যাম্প-৫ সিআইসি অফিসে সাধারণ রোহিঙ্গাদের সাথে মতবিনিময়ে মিলিত হন তারা। পরে কমিটির সদস্যরা ক্যাম্পের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

বিকেলে স্থায়ী কমিটির সভাপতি, সদস্য ও কমিটির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা খুরুস্কুল আশ্রায়ণ ও বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প পরিদর্শন করে বিকেল ৫ টায় শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন অফিসারের কার্যালয়ের সেমিনার কক্ষে আরআরআরসি’র প্রতিনিধি, রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পে কর্মরত জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি, এনজিও, আইএনজিও এর প্রতিনিধি, জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি, নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিনিধিদের সাথে যৌথ সভায় মিলিত হন।

বৈঠক শেষে রাত পৌনে আটটার দিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন বলেছেন, কক্সবাজার এসে আমরা সরকারের উন্নয়নের মেগাপ্রকল্প রেললাইন, খুরুশকুল আশ্রয়ণ প্রকল্প, বায়ু বিদ্যুৎ প্রকল্প, মরিন ড্রাইভসহ চলমান কাজগুলো পরিদর্শন করেছি।

সকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ভুক্তভোগী রোহিঙ্গা, স্টক হোল্ডারসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলেছি। রোহিঙ্গাদের দ্বারা সৃষ্ট সমসয়া চিহ্নিত করে সরকারকে জানানো হবে। সরকার যে সিদ্ধান্ত নিবে সেটি সকলকে জানানো হবে।

এসময় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. এ.কে আব্দুল মোমেন, নাহিম রাজ্জাক, নুরুল ইসলাম নাহিদ, হাবিবুর রহমান ও জাতীয় সংসদের হুইপ সাইমুম সারওয়ার কমল, মো. জাহিদ আহসান রাসেল, নিজাম উদ্দিন জলিলসহ অন্যরাও এতে অংশ নিচ্ছেন।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM