বৃহস্পতিবার, ২৫ Jul ২০২৪, ১০:৩০ অপরাহ্ন

মার্তিনেজ কেন লাল কার্ড পেলেন না ?

মার্তিনেজ কেন লাল কার্ড পেলেন না ?

অনলাইন বিজ্ঞাপন

এমিলিয়ানো মার্তিনেজকে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখাচ্ছেন রেফারি। ছবি : সংগৃহীত

গত বছর কাতারে ৩৬ বছরের আক্ষেপ ঘুচিয়ে বিশ্বকাপ জেতে আর্জেন্টিনা। তৃতীয়বারের মতো বিশ্ব জয়ে আলবেসিলেস্তাদের গোলবার সামলান এমিলিয়ানো মার্তিনেজ। লুসাইলে সেই মহাকাব্যিক ফাইনালে টাইব্রেকে দুর্দান্ত সেভ করেন আর্জেন্টাইন গোলকিপার। এর আগে কোয়ার্টার ফাইনালেও টাইব্রেকে নেদারল্যান্ডসের দুটি শট রুখে দিয়েছিলেন তিনি।

সেই টাইব্রেকেই ফরাসি ক্লাব লিলের জোড়া শট রুখে দিয়ে অ্যাস্টন ভিলাকে টেনে তুললেন ইউরোপা কনফারেন্স লিগের সেমিফাইনালে। দেশ ও ক্লাবের জার্সিতে টাইব্রেকে পাঁচ ম্যাচ জিতলেন মার্তিনেজ।

তবে ভিন্ন দুটি কারণে এ ম্যাচে আলোচিত হয়েছেন আর্জেন্টাইন গোলকিপার। কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালের জন্য তার প্রতি অলার্জি রয়েছে ফরাসি দর্শকদের। তাই ফ্রান্সের ক্লাব লিলের মাঠে টাইব্রেকে শট রুখে, ফরাসি সমর্থকদের চুপ থাকতে ইশারা করেন তিনি।

অন্য কারণটি হচ্ছে এ ম্যাচে দুবার হলুদ কার্ড দেখলেও, তাকে কিন্তু মাঠ ছেড়ে যেতে হয়নি। প্রশ্ন হচ্ছে কেন? ম্যাচের ২৮ মিনিটে ঘটনার সূত্রপাত। সময় নষ্ট করার কারণে তাকে প্রথম হলুদ কার্ড দেখান ম্যাচের রেফারি রেফারি ইভান ক্রুজলিয়াক।

এরপর টাইব্রেকের মাঝে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখানো হয় আর্জেন্টাইন বিশ্বকাপজয়ী গোলকিপারকে। কিন্তু দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের পরও অ্যাস্টন ভিলার গোলবার সামলান মার্তিনেজ। সাধারণ নিয়মে হলো, দুটি হলুদ মিলে লাল কার্ড দেওয়ার।

তবে ফুটবলের অন্য একটি নিয়মের কারণে বেঁচে যান মার্তিনেজ। ফুটবলের আইনপ্রণেতা ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ডের (আইএফএবি) ১০ নম্বর ধারায় বলা আছে, ‘ম্যাচে (অতিরিক্ত সময়সহ) সতর্কবার্তা ও কার্ড পেনাল্টিতে (টাইব্রেকে) বিবেচিত হবে না। ম্যাচে এবং টাইব্রেকে হলুদ কার্ড দেখা ফুটবলার মাঠের বাইরে যাবেন না।’

অর্থাৎ ম্যাচের নির্ধারিত সময় এবং অতিরিক্ত সময়ে দেখা হলুদ কার্ড-টাইব্রেকারে কাজে আসবে না। যদিও ম্যাচ শেষে টাইব্রেকে হলুদ কার্ড দেখানোর রেফারির ওপের ক্ষোভ প্রকাশ করেন আর্জেন্টাইন গোলকিপার।

তিনি বলেন, ‘আমার এটা নিয়ে দুর্নাম আছে তাই, আমাকে কার্ড দেখানো হয়েছে। কারণ লিলের গোলকিপারও সময় নষ্ট করছিল। ৩০ মিনিটের আগে (২৮ মিনিট) হলুদ কার্ড দেখেছি। তখন আমরা ম্যাচটি হারের পথে ছিলাম। জানি না রেফারি তখন আমার কাছে কী প্রত্যাশা করছিলেন। এরপর পেনাল্টি স্পটে (টাইব্রেকে) কোনো বল ছিল না। সে জন্য বল বয়ের কাছে বল চাইতে গিয়ে হলুদ কার্ড দেখতে হলো। আমি নিয়মটাই বুঝতে পারছি না।’

সূত্র-কালবেলা।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM