বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

নাশকাতর জন্য অস্ত্র মজুদ করছিলো সন্ত্রাসীরা

নাশকাতর জন্য অস্ত্র মজুদ করছিলো সন্ত্রাসীরা

অনলাইন বিজ্ঞাপন

ছবি-আটক চার আরসা সদস্য ও উদ্ধার হওয়া অস্ত্র।

 

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘর্ষে পালিয়ে গোপনে উখিয়ার বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়েছে আরসা সন্ত্রাসীরা। এসব অপরাধীরা বিভিন্ন ক্যাম্পে নাশকতার উদ্দেশ্যে অস্ত্র-গোলাবারুদ-গ্রেনেড মজুদ করছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাতে জামতলি রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৫ অভিযান চালিয়ে অস্ত্র, গোলাবারুদ, গ্রেনেড ও ওয়াকিটকিসহ চার আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে এপিবিএন এর সদস্যরা।

আরসা সদস্যরা হলেন- মোহাম্মেদ আমিন (২৩), পেটান শরীফ (৪৩), আবুল কাশেম (৩৩) এবং সৈয়দুর রহমান (২৫)।

৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মো. আমির জাফর তাদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে অরসা সন্ত্রাসীরা অবৈধ অস্ত্র মজুদ করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে উখিয়ার জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৫ এর ব্লক-ই/৫ এলাকায় অভিযান চালিয়ে চার আরসা সদস্যকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পাঁচটি ওয়ান শুটারগান, একটি এলজি, ৩৬ রাউন্ড রাইফেলের গুলি, আট রাউন্ড গুলির খোসা, চার রাউন্ড শটগানের কার্তুজ, তিনটি হাতে তৈরি গ্রেনেড, তিনটি বড় পটকা, একটি ওয়াকিটকি সেট, দুইটি বড় ছোরা, একটি গুলতি এবং দুইটি লোহার শিকল উদ্ধার করা হয়।

এপিবিএন অধিনায়ক আরও বলেন, অভিযানের সময় আরও অনেক আরসা সদস্য দ্রুত পালিয়ে যায়। ক্যাম্পের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা করে অস্ত্র মজুদ করেছিল বলে প্রাথমিক জিঙ্গেসবাদে পুলিশকে জানিয়েছে তারা। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM