বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪৯ অপরাহ্ন

শহরের ইয়াবা বাজার দু’ সহোদর হাতে

শহরের ইয়াবা বাজার দু’ সহোদর হাতে

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক
শহরের কলাতলীতে চলছে রমরমা ইয়াবা বাণিজ্য। ইউনুচ ও সেলিম নামের দু’ সহোদরের নেতৃত্বে কলাতলী বাসটার্মিনাল
সহ শহর জুড়ে দৈনিক ৪০/৫০ হাজার ইয়াবা পৌছেঁ যাচ্ছে যুব সমাজের হাতে। ৬/৭টি সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করে ইয়াবা বাজার। শহরের ভেতরের হোটেল, রেস্তোরা,পানের দোকান, মুদির দোকান এমন কি ফেরি ওয়ালাদের মাধ্যমেও পৌছেঁ যায় নির্দ্দিষ্ট গন্তব্যে। এলাকাবাসী ও প্রতিবাদকারী যুব সমাজ দীর্ঘদিন ধরে তাদের এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকলেও অর্থ এবং প্রভাবের কাছে নিরীহ ছাত্রজনতা বারবার প্রতিবাদ করেও পিছু হঠে যেতে বাধ্য হচ্ছে বলে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছে। শহরে হাত বাড়ালে যেখানে ইয়াবার নাগাল পাওয়া যায় তার অন্যতম সাপ্লাইয়ার হচ্ছে ইউনচ- সেলিমের নেতৃত্বাধীন ৬ সদস্যের শক্তিশালী ইয়াবা সিন্ডিকেট। এক পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, শহরের অপ্রাপ্ত বয়স্ক অন্তত শতাধিক ছেলের হাতে অভিনব কায়দায় ইয়াবা পৌছেঁ যাচ্ছে গ্রাহক ও খুচরা বিক্রেতার হাতে। কলাতলীতে অবস্থিত অন্তত অর্ধশত হোটেল ও কটেজে দিবারাত্রি বসে ইয়াবা আসর। কেনা বেচা থেকে শুরু করে বসে ইয়াবা সেবনের আসরও। এতে যুব সমাজের পাশাপাশি যুবতীরাও অংশ নিচ্ছে। আর এসব ইয়াবা ব্যবসা ও যে সব হোটেল গেষ্ট হাউস ও কটেজে ইয়াবার ছড়াছড়ি সেখানে সমানতালে চলে দেহ ব্যবসা। পুলিশ গোয়েন্দা পুলিশ, আইন-শৃংখলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট এসব বিষয়ে অবগত রয়েছে বলেও স্থানীয়দের অভিযোগ। মাঝে মাঝে লোক দেখানো অভিযান জনমনে স্বস্থির চাইতে ভীতিকর পরিবেশ পরিস্থিতি তৈরী করে বলেও অনেক হোটেল, গেষ্ট হাউস ও কটেজ মালিকের দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ করে আসছে। কারন অভিযান চলাকালে ভাল মন্দ সকলেই কোন না কোন ভাবে আর্থিক বা মামলা সংক্রান্ত সমস্যার সম্মূখীন হয়। কটেজ পল্লী গুলোতে কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তির ছত্র ছায়ায় ইয়াবা ও পতিতা এক সাথে চলছে যা দেখার যেন কেউ নেই।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM