মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৬:৪১ অপরাহ্ন

পেকুয়ায় ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী শারমিনের আত্মহত্যা!

পেকুয়ায় ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী শারমিনের আত্মহত্যা!

অনলাইন বিজ্ঞাপন

পেকুয়া প্রতিনিধি

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী মেধাবী ছাত্রী  সৌদি প্রবাসী দিদারুল ইসলামের কন্যা শারমিন রীমা জেনি (১৫) নামের এক কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। সে এবার টইটং উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরিক্ষা সফলতার সাথে শেষ করে। ২৯ নভেম্বর ভোরের কোন এক সময় সে গলায় ফাঁস লাগিয়ে সৎ মায়ের বাসায় আত্মহত্যা করে।

মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার টইটং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের পন্ডিত পাড়া এলাকায়। সকাল ৮টায় পুলিশ ওই কিশোরীর লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সরকারী হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

সরোজমিন গিয়ে  ও স্থানীয়দের সাথে কথা জানা গেছে, ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী শারমিন আকতার টইটং উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পিএসসি পরিক্ষায় সফলতার সাথে উত্তীর্ণ হয়ে এবারে জেএসসি শেষ করেছে। তার পিতা দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবে প্রবাসী হিসাবে কর্মরত আছে। এরই মাঝে ২০১২ সাথে প্রথম স্ত্রী মরতুজা বেগম ও তাদের ৫ সন্তান রেখে চট্রগ্রামস্থ লোহাগাড়া থেকে শাহিন সোলতানা নামের এক মেয়ে বিবাহ করে। প্রথম স্ত্রী ও ২য় স্ত্রীর জন্য রয়েছে পৃথক পৃথক বাড়ি।  ১ম স্ত্রীর কন্যা শারমিন থাকত ২য় স্ত্রীর ১তলা বিশিষ্ট ভবনে। আর ওই বাড়ির ছাদের উপর সিরির সাথে লাগানো একটি গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো মৃত অবস্থায় তার লাশটি পাওয়া যায়। আর ছাদের তলার সাথে উপরের দূরত্ব ছিল শুধু মাত্র  ৬ ফিট। তাদের ধারণা এ আত্মহত্যার ঘটনাটি নিয়ে রহস্য রয়েছে।

পেকুয়া থানার এসআই ওমর ফারুক জানিয়েছেন, কিশোরী ছাত্রী শারমিন রীমা জেনির আত্মহত্যার খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM