বাংলাদেশ, , শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩

রবিবার থেকে আদালত বর্জনের ঘোষণা আইনজীবীদের

আলোকিত কক্সবাজার ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২২-১১-২৬ ১৯:০৩:২৫  

ছবি- জরুরি সাধারণ সভায় বক্তব্য রাখছেন আইনজীবী সমিতির নেতারা।

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল বিরুদ্ধে আইনজীবীদের সাথে দুর্ব্যবহার, কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য, অশোভন আচরণ, অনিয়ম এবং স্বেচ্ছাচারিতা অভিযোগ এনে কাল রবিবার থেকে আদালত বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন আইনজীবী সমিতি। তাকে (জজ) প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকবে বলে জানান সমিতির নেতারা।

শনিবার (২৬ নভেম্বর) বিকেলে জেলা বার মিলনায়তনে সমিতির জরুরি সাধারণ সভায় এমন সিদ্ধান্ত নেন আইনজীবী সমিতির নেতারা।

সমিতির সভাপতি ইকবালুর রশিদ আমিন সোহেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তাওহীদুল আনোয়ার।

এ সময় বক্তারা, আদালত চলাকালীন সময়ে আইনজীবীদের সম্পর্কে উচ্চস্বরে আপত্তিজনক মানহানিকর মন্তব্য, অসৌজন্যমূলক আচরণ, স্বেচ্ছাচারী মনোভাব, এজলাসে আইনজীবীসহ কর্মচারীদের ক্রসফায়ারের হুমকি, প্রতিদিন ইচ্ছেমাফিক দেরীতে আদালত পরিচালনা করা, সঠিক সময়ে আদালতের কার্যক্রম শেষ না করা, কিছু কিছু মামলা এজলাসে শুনানী না করে কর্মচারীদের কথামত খাস কামরায় আদেশ দেয়া, বিশেষ বিশেষ মামলার নথি উপস্থাপন দেখিয়ে শুনানী করা, দায়িত্ব¡প্রাপ্ত নির্ধারিত পেশকার থাকা সত্ত্বেও তলপিবাহক অবসরপ্রাপ্ত পেশকারকে দিয়ে আদালতে কার্যক্রম পরিচালনা করা এবং জেলা জজের সেরেস্তাসহ বেঞ্চে বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে অভিযোগ এনে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়।

একই সাথে ফৌজদারি মিস মামলা দায়েরের সাথে সাথে শুনানির পরবর্তী তারিখ ঘোষণা করা এবং জামিনপ্রাপ্ত আসামীদের জামানতের টাকা সহনীয় পর্যায়ে রাখার দাবিও জানানো হয় সভায়।

সভাপতি ইকবালুর রশিদ আমিন সোহেল বলেন, বিচার কার্য চলাকালীন সময় একজন বিচারক আইনজীবীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং বিভিন্ন সভা সেমিনারে আইনজীবীদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্যও করেন। বিচারকের কাছে এমন আচরণ অপ্রত্যাসিত। তাই নিজেদের ইজ্জত রক্ষায় আজ সমিতির সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইনজীবীরা।

তিনি বলেন, তাকে (জেলা জজ) প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত আদালত বর্জনের সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম বলেন, এটি আইনজীবী সমিতির সিদ্ধান্ত। এখানে আমার কোন মন্তব্য নেই। তবে বেঞ্চের কিছু অনিয়মের কথা স্বীকার করেছেন পিপি।

আলোচনা সভায় জেলা বারের সিনিয়র নেতৃবৃন্দরা বক্তব্য রাখেন।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
                                       
ফেইসবুকে আমরা