বাংলাদেশ, , শনিবার, ১ অক্টোবর ২০২২

টেকনাফে উদ্বোধন হলো মাতৃসদন ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র

আলোকিত কক্সবাজার ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২২-০৯-১৩ ১৩:২৬:৩৬  

 

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি; তৃণমূল পর্যায়ের সাধারণ মানুষের দোরগোঁড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কক্সবাজারের টেকনাফের হাজামপাড়ায় উদ্বোধন করা হয়েছে মাতৃসদন ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র। সরকারের সহযোগিতায় আইএফআরসি ও আইডিবি- এর অর্থায়নে ১০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটি বাস্তবায়ন করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসিএস)।

এ উপলক্ষে সোমবার হাজামপাড়াস্থ কেন্দ্র প্রাঙ্গনে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিডিআরসিএস এর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব মো নূর উর রহমান।

এই সময় তিনি বলেন, প্রত্যন্ত এলাকায় অবস্থিত এ কেন্দ্রটিতে মায়েরা প্রসবজনিত সেবা এখানে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পাবেন। এ বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সম্পূর্ণ ফ্রি সেবা দেয়া হবে। এরপরে কেন্দ্রটি পরিচালনার স্বার্থে নুন্যতম সেবাচার্জ নির্ধারণ করে দেয়া হবে। টেকনাফে সাধারণ মানুষের জন্য এমন একটি কল্যাণকর কাজ করতে পেরে আমরা আনন্দিত।

বিডিআরসিএস কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এডভোকেট আয়াছুর রহমানের সভাপতিত্বে এতে সিভিল সার্জন ডা. মাহব্বুুর রহমান, আইএফআরসি হেড অব ডেলিগেশন সঞ্জিব কুমার কাফলী, কক্সবাজার অফিস প্রধান ঋষিকেশ হরিচন্দন, বিডিআরসিএস এর স্বাস্থ্য বিষয়ক পরিচালক ডা. নাহিদ আহমেদ চৌধুরী এবং ডিজাস্টার রেসপন্স ও যুব সেচ্ছাসেবক বিভাগের পরিচালক মো মিজানুর রহমান, বিডিআরসিএস কক্সবাজারের সদস্য এটিএম জিয়াউদ্দীন জিয়া, টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম, টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো এরফানুল হক চৌধুরী, নয়া পাড়া ক্যাম্প ইনচার্জ আব্দুল হান্নান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা টিটু চন্দ্র শীল, টেকনাফ সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সেক্রেটারি খোরশেদ আলম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিডিআরসিএস এর পপুলেশন মুভমেন্ট অপারেশন পরিচালক ও হেড অব অপারেশন এম এ হালিম।

 

 

সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, করোনার শুরু থেকে রেড ক্রিসেন্ট এর যুব স্বেচ্ছাসেবক থেকে শুরু করে সকল কর্মকর্তারা সারাদেশে মানবিক কাজে সহযোগিতা করে আসছেন। এটি একটি দৃষ্টান্ত। যখন আমরা যেভাবে সহযোগিতা চেয়েছি সেভাবে সহযোগিতা করে আসছেন জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

সভাপতির বক্তব্য রাখেন আয়াছুর রহমান বলেন, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রধান উদ্দেশ্য যে কোন মানবিক কাজে সরকারের সহযোগী হয়ে মানবসেবা প্রদান করা।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসিএস) এর প্রায় ২ একর নিজস্ব জমিতে ২ কোটি টাকা ব্যয়ে স্থাপন করা হয়েছে এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি। এখানে প্রসূতি, সহ-প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা পাবে স্থানীয় প্রায় ২০ হাজার মানুষ।

উলে­খ্য, কক্সবাজারে মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত নাগরিকদের ক্যাম্পে ও উখিয়ায় অবস্থিত ফিল্ড হাসপাতালসহ মোট ১৪ টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র থেকে বিডিআরসিএস, আইএফআরসি ও অন্যান্য রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট পার্টনারদের সহযোগিতায় ২০১৭ সাল থেকে কোভিডসহ অন্যান্য চিকিৎসাসেবা প্রদান করে আসছে। এছাড়া ১৯৯২ সাল থেকে চলমান মিয়ানমার রিফিউজি রিলিফ অপারেশন (এমআরআরও), ২০১৭ সালে শুরু হওয়া চলমান পুলেশন মুভমেন্ট অপারেশনের অংশ হিসাবে এবং অন্যান্য দেশের রেডক্রস-রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির সহায়তায় ক্যাম্পে বসবাসকারী এবং স্থানীয় জনগোষ্ঠীর উভয়কে ই-স্বাস্থ্যসেবা, পরিচ্ছন্নতা ও স্বাস্থ্যবিধি; আশ্রয়ন, জীবিকা ও মৌলিক চাহিদা এবং দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস কার্যক্রমের পাশাপাশি নারী ও সর্বাধিক ঝুঁকিগ্রস্ত স¤প্রদায়ের সুরক্ষা সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ২০১৭ সালে অপারেশন শুরু থেকে এ যাবৎ, বিডিআরসিএস প্রায় ১২ লাখ মানুষকে মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
                                       
ফেইসবুকে আমরা