শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৭:০০ অপরাহ্ন

কক্সবাজার আসছে জিম্বাবুয়ে নারী ক্রিকেট দল

কক্সবাজার আসছে জিম্বাবুয়ে নারী ক্রিকেট দল

অনলাইন বিজ্ঞাপন

শাহ নিয়াজ

নিরাপত্তার অজুহাতে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দল বাংলাদেশ সফর বাতিল করার পর বাংলাদেশ নারী দল কক্সবাজারে ঘাম ঝরানো অনুশীলন এবং প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে ক্ষতি পুষিয়ে উঠার চেষ্টা করছে। দক্ষিণ আফ্রিকা নারী সফর বাতিল করলেও সুখবর হচ্ছে জিম্বাবুয়ে নারী দল আসছে খেলার জন্য। বাংলাদেশ নারী দলের খেলোয়াড় এবং কোচ কর্মকর্তারা এই আশার কথা জানান।

দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দলের সাথে ওয়ানডে এবং টি-২০ সিরিজ খেলতে গত ১ নভেম্বর কক্সবাজার আসে বাংলাদেশ নারী দল। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা নারী দল সিরিজ স্থগিত করার পর বাংলাদেশ আর ঢাকা ফিরে যায়নি। এখানে ব্যাটে-বলে কঠোর অনুশীলনের পর অনুর্ধ্ব -১৮ এবং অনূর্ধ্ব-১৪ জেলা ক্রিকেট দলের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে নিজেদের ভুল ত্রুটি কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেছে। কক্সবাজার আসার আগে ঢাকায় ফিটনেস ক্যাম্পে অংশ নিয়েছে প্রমিলারা। আজ শনিবার টাইগ্রেসরা আবার প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে অনূর্ধ্ব-১৪ ক্রিকেট দলের সাথে। আগামী ১৭ এবং ১৯ নভেম্বর কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ে মহিলা দলের সাথে দুইটি টি-২০ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ মহিলা দল। ২০১৬ সালে টি-২০ বিশ্বকাপ খেলার জন্য এই মাসে থাইল্যান্ডে কোয়ালিফাইং টুর্নামেন্ট খেলতে হবে জাহানারা-সালমাদের।

২২ নভেম্বর থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিবে জাহানারারা। থাইল্যান্ডে দুইটি বিশ্বকাপ কোয়ালিফাইং ম্যাচ খেলবে। ওই দুইটি ম্যাচ জিততে পারলে ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-২০ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। তার আগে নিজেদের দুর্বলতা কাটিয়ে উঠার জন্য কঠোর অনুশীলন, প্রস্তুতি ম্যাচ এবং আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছে টাইগ্রেসরা।

বাংলাদেশ মহিলা দলের খেলোয়াড় জাহানারা আলম জানান, কক্সবাজারে অনুশীলনের ভালো সুযোগ পাচ্ছি। এটি ভালো মাঠ। পরিকল্পনা মাফিক কাজ করছে খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তারা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল করলেও জিম্বাবুয়ে মহিলা দল খেলতে আসছে এখানে। আমাদের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। প্রস্তুতিও ভালো হয়েছে। আমাদের প্রথম লক্ষ্য বিশ্বকাপ কোয়ালিফাই। জিম্বাবুয়ের সাথে ম্যাচ দুইটি আমাদের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। বিশ্বকাপ টি-২০ কোয়ালিফাইং ম্যাচ খেলার আগে জিম্বাবুয়ের সাথে ম্যাচ দুইটির ভালো ফল অনুপ্রেরণা জোগাবে।

111111111111আমাদের জাতীয় ক্রিকেট দল জিম্বাবুয়েকে হোয়াইট-ওয়াশ করেছে। আমাদেরও লক্ষ্য থাকবে তাদের মহিলাদলকে হোয়াইটওয়াশ করা। অনুশীলনে আমাদের কোচিং স্টাফ এবং খেলোয়াড়রা কঠোর পরিশ্রম করছে। আশা করি এই কষ্টের ফল আমরা পাবো।

বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের শ্রীলংকান কোচ চাম্পিকা গামাগে জানান, আমাদের দলের প্রস্তুতি অনেক ভালো। অনেক ভালোভাবে অনুশীলন করছে খেলোয়াড়রা। বাংলাদশে নারী দলের সাথে জিম্বাবুয়ে নারী দলের আগামী ১৭ এবং ১৯ নভেম্বর দুইটি খেলা অনুষ্ঠিত হবে এই ভ্যানুতে। খেলা দুইটি আমাদের টি-২০ বিশ্বকাপ কোয়ালিফাইং রাউন্ডে খেলার প্রস্তুতি হিসেবে ইতিবাচক হবে। কক্সবাজার আন্তর্জাতিক ভ্যানু তাই আমারা এখানে অনেক ভালো সুযোগ-সুবিধা পেয়েছি। কক্সবাজারে আসার পর থেকে কঠোর অনুশীলন করছে মেয়েরা। আশা করি এর ফল পাওয়া যাবে। ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করার বিষয়েও আশাবাদী এই লঙ্কান কোচ। গামাগের আশা বাংলাদেশ টি-২০ বিশ্বকাপ খেলবে।
উল্লেখ্য, ২০১৪ টি-২০ বিশ্বকাপটা বাংলাদেশ খেলেছে স্বাগতিক দেশ হিসেবে। ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিতব্য টি-২০ বিশ্বকাপে খেলার আগে আসছে নভেম্বরে থাইল্যান্ডে কোয়ালিফাইং টুর্নামেন্ট খেলতে হবে সালমাদের। তাই মাথায় বিশ্বকাপ কোয়ালিফাইংয়ের বিষয়টিও থাকছে।”


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM