সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন

চকরিয়ায় পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২১ : অস্ত্র উদ্ধার

চকরিয়ায় পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২১ : অস্ত্র উদ্ধার

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মনজুর আলম, চকরিয়া

চকরিয়ায় পুলিশের ৬ ঘন্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযানে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে অস্ত্র, মাদক, ডাকাতি, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ, নারী নির্যাতন, বন মামলাসহ বিভিন্ন অপরাধের মামলায় ২১ জন আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এছাড়াও অভিযানের সময় পরিত্যক্ত অবস্থায় ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ছাইরাখালী এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে দেশীয় তৈরি একটি একনলা বন্দুক। গ্রেপ্তারকৃত এসব আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়ছে।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার সদর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. মাসুদ আলম, চকরিয়া থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম, অপারেশন অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি দেবাশীষ সরকার, উপপরিদর্শক যথাক্রমে সুখেন্দু বসু, মো. আলমগীর, সুকান্ত চৌধুরী, মো. এনামুল হক, দিদারুল ইসলাম, সহকারী উপপরিদর্শক মো. নুরুল আলম, শিমুল কান্তি চৌধুরী, কাজী হাসান, মোতাহের হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম ছাড়াও বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল আজম জানান, গ্রেপ্তারকৃত এসব আসামীর মধ্যে সিআর মামলায় আদালতের পরোয়ানা রয়েছে ১৪ জনের বিরুদ্ধে ও জিআর মামলায় পরোয়ানা রয়েছে ৭ জনের বিরুদ্ধে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন কোনাখালীর সিকদার পাড়ার আশরাফ মিয়ার ছেলে কামাল হোসেন, পৌরসভার হালকাকারা মৌলভীর চর এলাকার মোক্তার আহমদ প্রকাশ পাগলা মোক্তারের ছেলে আবদু শুক্কুর, খুটাখালী গর্জনতলীর মো. ইউসুফ আলীর ছেলে আবু তাহের, ডুলাহাজারা পাগলির বিল এলাকার নন্না মিয়ার ছেলে আবদুল আলীম, তৈয়ম গোলালের ছেলে আমিনুল হক, উলা মিয়ার ছেলে তৈয়ম গোলাল, ইসহাক মিয়ার ছেলে শাহ আলম, রংমহল এলাকার ইছহাক মিয়ার ছেলে রফি আলম, নতুন পাড়ার আলী আকবরের ছেলে কামাল, নুরুল ইসলামের ছেলে নুরুল কবির, শফিকুর রহমানের ছেলে মো. ইসমাঈল ও জাফর আলম, বশির আহমদের ছেলে সালাহউদ্দিন ও মিরাজ উদ্দিন, মঈনুল আহমদের ছেলে সাইফুল ইসলাম, বাদশা মিয়ার ছেলে ইমরান, জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আরিফুল ইসলাম, পশ্চিম কোনাখালীর দলিলুর রহমানের তিন ছেলে মোক্তার আহমদ, নুরুল আবচার ও নাছির উদ্দিন, বরইতলী পহরচাঁদা জসীম উদ্দিনের ছেলে আবচার আহমদ।
চকরিয়া থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, ‘ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে চারভাগে ভাগ হয়ে শুক্রবার দিবাগত রাত বারোটা থেকে পরদিন ভোর ৬টা পর্যন্ত একযোগে ৬ ঘন্টার এই রুদ্ধশ্বাস অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের সময় সিআর ও জিআর মামলায় গ্রেপ্তারী পরোয়ানাভূক্ত ২১ জন আসামীকে গ্রেপ্তার এবং ফাঁসিয়াখালীর ছাইরাখালী এলাকা থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় দেশীয় তৈরি একনলা বন্দুক উদ্ধার করা হয়।’


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM