বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন

‘স্বচ্ছতায় কাজ করতে গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাইলেন জেলা প্রশাসক’

‘স্বচ্ছতায় কাজ করতে গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাইলেন জেলা প্রশাসক’

অনলাইন বিজ্ঞাপন

গণমাধ্যম কর্মী এবং সরকারি কর্মকর্তা একে অপরের পরিপূরক। কখনো তারা প্রতিপক্ষ নয়, বরং সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টায় সরকারের উন্নয়নমূলক কার্যক্রমকে জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে চাই। এ ক্ষেত্রে সকলের সদিচ্ছা ও সহযোগিতা প্রয়োজন। কক্সবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় নবাগত জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশিদ এসব কথা বলেছেন।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের শহীদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাজাহান আলীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক আরো বলেন, তথ্যের প্রয়োজনে সংবাদকর্মীরা যখনই আমাকে ফোন দিবেন, আমি যতই ব্যস্ত থাকিনা কেন ছাড়া দেয়ার চেষ্টা করবো। যদি কোন কারণে ফোন রিসিভ করতে না পারি তবে আমি কল বেক করবো। এতে কাজ করতে তেমন একটা সমস্যা হবে না। যেহেতু কক্সবাজারে জেলা প্রশাসনের কাজের ব্যাপ্তি বেশি সেক্ষেত্রে কাজ করাও বড় চ্যালেঞ্জ। এক্ষেত্রে দায়িত্বশীল আরচণ ছাড়া সফলভাবে কাজ শেষ করা কঠিন হয়ে পড়বে।

এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে নবাগত জেলা প্রশাসক বলেন, এলআর ফান্ড নামে জেলা প্রশাসনের কোন ফান্ড নেই। এ খাতে টাকা নেয়ার সুযোগ নেই। যদি কেউ এখাতের নামে টাকা আদায় করে থাকে তবে প্রমাণ দিতে পারলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। কারণ দুর্নীতিতে জিরো টলারেন্স নীতিতে চলছে সরকার। আমিও এর বাইরে নয়।

তিনি বলেন, সরকারের উন্নয়নমূলক কাজে যাদের ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে তারা যেন সঠিকভাবে ক্ষতিপূরণের টাকা নিতে পারে সেটি দেখা হবে। এর বাইরে কোন লেনদেন হবে না। আমরা স্বচ্ছতা ও জবাবদীহিতার মাধ্যমে কাজ করবো। এখানে কোন কিছুই গোপনীয়তা নেই।

বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির তহবিল, রোহিঙ্গা আগমনের পরে সহযোগিতা তহবিল নামে জেলা প্রশাসন কর্তৃক খোলা হিসাব, সদ্য বিদায়ী জেলা প্রশাসক যাবার পূর্বে বিভিন্ন সংগঠন-ব্যাক্তিকে দেয়া বিভিন্ন অংকের সহযোগিতার অর্থের উৎস ও কোন কোন প্রকল্পে এসব টাকা দেয়া হয়েছে এসব প্রশ্নের জবাবে নবাগত জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ বলেন, আমি নতুন এসেছি, এসব বিষয় ঠিকমতো জানা হয়নি। তবে পরবর্তীতে জেনে প্রশ্নের উত্তরগুলো দেয়ার চেষ্টা করবো।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেজ এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) জাহিদ ইকবাল, কক্সবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি মাহবুবুর রহমান, কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ আলী জিন্নাত, দৈনিক বাঁকখালীর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, জনকণ্ঠ কক্সবাজারস্থ স্টাফ রিপোর্টার এইচএম এরশাদ, বাংলাভিশন কক্সবাজারস্থ স্টাফ রিপোর্টার এমআর খোকন, আরটি কক্সবাজার প্রতিনিধি সাইফুর রহিম শাহীন, কক্সবাজার রিপোর্টাস ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি সায়ীদ আলমগীর, ডেইলি সান কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি ওয়াহিদ রুবেল, একুশে পত্রিকার কক্সবাজার প্রতিনিধি জসিম উদ্দিন, কক্সবাজার নিউজ’র বার্তা সম্পাদক ইমাম খাইর, দৈনিক মেহদী পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শ.ম. ইকবাল বাহার, দ্বীপ্ত টিভি’র জেলা প্রতিনিধি হারুন অর রশিদ, সি-প্লাস টিভি’র এহসান কুতুবী, মাই টিভি’র সাইফুল ইসলাম, কক্সবাজার টিভি’র সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, চ্যানেল কক্স এর নির্বাহী সম্পাদক নাজিম উদ্দিন, দৈনিক গণসংযোগ পত্রিকার মফস্বল সম্পাদক কাজী তামজিদ পাশাসহ বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মীরা।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM