শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন

পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদ নিয়ে দু’অফিসারের টানাপোড়ন!

পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদ নিয়ে দু’অফিসারের টানাপোড়ন!

অনলাইন বিজ্ঞাপন

এস.এম.ছগির আহমদ আজগরী পেকুয়া॥   

পেকুয়া উপজেলায় পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদের দায়িত্ব পালন নিয়ে দু’অফিসারের মাঝে টানাহেচড়ার খবর পাওয়া গেছে। এনিয়ে স্বাস্থ্য সেবার গুরুত্বপূর্ণ ওই বিভাগের কার্যক্রমে দেখা দিয়েছে চরম অসন্তোষ, অনিয়ম অনিশ্চয়তা।

জানা যায়, পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসাবে দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালন করে আসছেন দু’উপজেলা(কুতুবদিয়া ও পেকুয়া)র’ গুরুত্বপূর্ণ ৪টি পদের দায়িত্বরত সহকারী পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বাবু বিধান কান্তি রুদ্র। তিনি এ দায়িত্বে থাকাবস্থায় দপ্তরটির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হয়রানী ছাড়াও নানা অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারীতার পাশাপাশি প্রতিষ্টানটি ঘুষ দূর্নীতির আখড়ায় পরিণত হওয়ার গুঞ্জন দেখা দেয়। আর বিষয়টি নিয়ে পত্র পত্রিকায় বিচ্ছিন্ন ভাবে সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশের জের ধরে তোলপাড় হলে তার স্থলে উর্ধতন মহল বদরীতে নিয়োগ দেন রামু উপজেলায় কর্মরত পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ের অফিস সহকারী আতিকুর রহমানকে।

কর্তৃপক্ষের আদেশে গত মাসের শেষ দিকে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আতিকুর রহমান জেলার পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ে যোগদান করেন। কর্তৃপক্ষের নির্দ্দেশ অনুযায়ী তিনি পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ের দায়িত্ব গ্রহনে যথাসময় ও নিয়মে পেকুয়ার কর্মস্থলে আসলেও বিপত্তি দেখা দেয় পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ে বর্তমানে বাবু বিধান কান্তি রুদ্র বদলী হয়ে আসা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আতিকুর রহমানকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে অপারগতা প্রকাশ। কুতুবদিয়া ও পেকুয়া এ দু’উপজেলার স্বাস্থ্য বিভাগের ৪টি পদে কর্মরত  দায়িত্বরত বিধান কান্তি রুদ্র বদলীতে আসা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আতিকুর রহমানকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে অপারগতা ছাড়াও স্থানীয় বিএনপি সমর্থীত উপজেলা চেয়ারম্যানের সাথে গোপন যোগসাজষ ও নানা জাল জালিয়াতি অনিয়মের আশ্রয় গ্রহনের মাধ্যমে আতিকের কাজে বাঁধা আর তালবাহানায় লিপ্ত হয়েছেন।

যা নিয়ে পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ে চলছে টাানাপোড়ন। অন্যদিকে, পেকুয়া উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কার্যালয়ের নীতি নির্ধারক ও দায়িত্বশীল দু’কর্মকর্তার মাঝে দায়িত্ব পালন নিয়ে টানা হেচড়ায় সেখানে এলাকাবাসীর সেবা নিশ্চিত নিয়ে দেখা দিয়েছে চরম অব্যবস্থাপনা ও অনিশ্চয়তা। পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মারুফুর রশিদ খানের মন্তব্য জানতে যোগাযোগ করলে তিনি এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি লোকমুখে শুনলেও দাপ্তরিক ভাবে কেউ আমাকে অবহিত করেনি।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM