বাংলাদেশ, , শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

জিএসপি পাওয়ার পথে অর্জন অনেক

আলোকিত কক্সবাজার ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০১৫-০৯-১৬ ১৮:১৫:৪৪  

আলোকিত কক্সবাজর ডেক্স: 

01_269284অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য সুবিধা (জিএসপি) পুনর্বহালের শর্ত হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া ১৬ দফা কর্মপরিকল্পনার প্রায় সবই বাস্তবায়ন করেছে বাংলাদেশ। ওই কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে সংশোধিত শ্রম আইন কার্যকর করার লক্ষ্যে শ্রম বিধিমালার গেজেট জারি করা হচ্ছে আজ বুধবার। এরপর বাকি থাকছে ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়ন চালু করা এবং শ্রমিক নেতা আমিনুল হত্যার বিচারে অগ্রগতির শর্ত পূরণ। ইপিজেডে ট্রেড ইউনিয়ন চালু করা না হলেও ইপিজেডভুক্ত কারখানাগুলোতে কয়েক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে ‘ওয়ার্কার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন’ গঠন করেছে সরকার, যা মূলত শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় কাজ করে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য দপ্তর বা ইউনাইটেড স্টেটস ট্রেড রিপ্রেজেন্টেটিভের (ইউএসটিআর) প্রতিনিধিদল আগামী শুক্রবার সকালে ঢাকায় পৌঁছবে। রানা প্লাজা ধস-পরবর্তী বাংলাদেশের তৈরি পোশাকসহ সব খাতে শ্রম পরিস্থিতির অগ্রগতির নানা তথ্য তুলে ধরে তাদের সন্তুষ্ট করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলো। এরই অংশ হিসেবে ত্বরিতগতিতে আজ জারি হচ্ছে শ্রম বিধিমালার গেজেট, যেখানে শ্রমিকদের নানা অধিকার সুরক্ষার পাশাপাশি উৎসব ভাতা দেওয়ার বিষয়টিও স্পষ্ট করে রাখা হয়েছে। সরকার আশা করছে, ১৬ দফা কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন পরিস্থিতিতে সন্তুষ্ট হয়ে স্থগিত করা জিএসপি পুনর্বহালের আশ্বাস মিলবে। আগামী নভেম্বর মাসে ইউএসটিআরের পর্যালোচনা শেষে বাংলাদেশের জিএসপি পুনর্বহাল হতে পারে।

জিএসপি পাওয়ার পথে অর্জন অনেক

ইউএসটিআরের প্রতিনিধিদলে থাকছেন যুক্তরাষ্ট্রের শ্রম দপ্তর, পররাষ্ট্র দপ্তর, ইউএসএআইডির কর্মকর্তারাও। ২৪ সেপ্টেম্বর ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে ওই প্রতিনিধিদলের। এর আগে জিএসপি পুনর্বহালের শর্ত হিসেবে দেওয়া ১৬ দফা কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করার পাশাপাশি ওয়াশিংটনে টিকফা ফোরামের আগামী বৈঠক কবে হবে, সেই দিনও চূড়ান্ত করবে তারা।

ইউএসটিআরের প্রতিনিধিদল ঢাকায় আসার পর ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, শ্রমিক সংগঠন ও মালিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে বৈঠক করবে। তাদের চট্টগ্রাম যাওয়ারও কথা রয়েছে। এই সময়ে প্রতিনিধিদল কোনো পোশাক কারখানা পরিদর্শনেও যেতে পারে বলে ধারণা বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও বিজিএমইএ নেতাদের।

তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএর সহসভাপতি রিয়াজ বিন মাহমুদ জানান, ২১ সেপ্টেম্বর বিজিএমইএর সঙ্গে ইউএসটিআর প্রতিনিধিদলের বৈঠক হবে। তিনি বলেন, প্রতিনিধিদল কোনো কারখানা সরেজমিন পরিদর্শনে যাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করতে পারে। তেমনটি হলে বিজিএমইএর পক্ষ থেকে তাদের কমপ্লায়েন্স কারখানাগুলোতে নিয়ে যাওয়া হবে। ২১ সেপ্টেম্বর বৈঠকের পর বিজিএমইএর উদ্যোগে সফরকারীদের সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন করা হচ্ছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসবে ইউএসটিআরের প্রতিনিধিদল। গতকাল মঙ্গলবার বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডাব্লিউটিও) দশম মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনের প্রস্তুতি সভা করতে জেনেভার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন। সেখান থেকে ইতালির মিলানে গিয়ে ‘এক্সপো মিলানো-২০১৫’-তে যোগ দিয়ে ২৩ সেপ্টেম্বর ঢাকা ফিরেই ইউএসটিআর প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন মন্ত্রী। ওই দিন সকালে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের উদ্যোগে প্রাতরাশের আয়োজন করা হচ্ছে।

কর্মকর্তারা জানান, যুক্তরাষ্ট্র সাধারণত বছরে দুবার নভেম্বর ও এপ্রিলে তাদের জিএসপি স্কিম পর্যালোচনা করে। আগামী নভেম্বর মাসেই বাংলাদেশের জিএসপি পুনর্বহালের সুপারিশ করতে ইউএসটিআরের প্রতিনিধিদলকে অনুরোধ করবে ঢাকা।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ সম্প্রতি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের ১৬ দফা শর্তের সবই বাস্তবায়ন করেছে বাংলাদেশ। তাই একমাত্র রাজনীতি ছাড়া জিএসপি পুনর্বহাল না করার কোনো কারণ নেই।

ইউএসটিআরের প্রতিনিধিদলের আগমন উপলক্ষে ১৬ দফা কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়ন পরিস্থিতির হালনাগাদ প্রতিবেদন চূড়ান্ত করছেন বাণিজ্য ও শ্রম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। কর্মপরিকল্পনার কয়েকটি বিষয় বাস্তবায়ন করতে মাঝখানে যে ঢিলেঢালা ভাব ছিল, তা দূর করে চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন তাঁরা। ২০১৩ সালের ২৭ জুন জিএসপি স্থগিত করে তা ফিরে পাওয়ার জন্য শ্রম আইন সংশোধনসহ ১৬ দফা শর্ত দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। এর মাত্র ১৮ দিনের মাথায় শ্রম আইনের মতো বিশাল ও জটিল আইন সংশোধন করে ওই বছরের ১৫ জুলাই বিল পাস করে সরকার। সংশোধিত শ্রম আইন কার্যকর করার জন্য প্রণীত বিধিমালার খসড়া এরপর থেকেই বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে ঘুরছে মতামতের জন্য। প্রক্রিয়া যেন শেষ হচ্ছিল না। এরই মধ্যে ঘনিয়ে এসেছে ইউএসটিআর প্রতিনিধিদলের সফর। তাই প্রতিনিধিদল ঢাকায় পা রাখার আগেই ঝুলে থাকা শ্রম বিধিমালার গেজেট আজ জারি করতে যাচ্ছে সরকার।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু গতকাল সাংবাদিকদের বলেছেন, মঙ্গলবারই শ্রম বিধিমালার গেজেট ছাপানোর জন্য বিজি প্রেসে পাঠানো হয়েছে। ছাপানো শেষে আজ বুধবারই তা জারি করা হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা হালনাগাদ তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া ১৬ দফা কর্মপরিকল্পনার প্রায় সবই বাস্তবায়িত হয়েছে, শুধু ইপিজেডভুক্ত কারখানাগুলোতে ট্রেড ইউনিয়নের নিবন্ধন দেওয়া ছাড়া। এ ক্ষেত্রে সমস্যা হলো ইপিজেডগুলোতে যখন বিদেশিরা বিনিয়োগ করেছে, তখন সেখানে ট্রেড ইউনিয়ন থাকবে না বলে উল্লেখ ছিল। এখন ট্রেড ইউনিয়ন চালু করতে গেলে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তাতে ঘোরতর আপত্তি জানিয়ে বিনিয়োগ প্রত্যাহারের হুমকি দিচ্ছে। তবে ইপিজেডভুক্ত কারখানাগুলোতে কয়েক বছর আগে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউয়ের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে ‘ওয়ার্কার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন’ গঠন করেছে সরকার।

যুক্তরাষ্ট্রের শ্রমিক সংগঠন এএফএল-সিআইওর বাংলাদেশের এজেন্ট হিসেবে পরিচিত শ্রমিক নেত্রী কল্পনা আক্তার ও বাবুল আক্তারের মামলা প্রত্যাহার, তাঁদের এনজিওগুলোর নিবন্ধন দেওয়া এবং শ্রমিক নেতা আমিনুল ইসলাম হত্যা মামলার চার্জশিট দেওয়ার কথা বলা হয়েছে ৯ নম্বর শর্তে। শর্তানুযায়ী কল্পনা আক্তার ও বাবুল আক্তারের মামলা প্রত্যাহার করা হয়েছে, তাঁদের এনজিওর নিবন্ধন পুনরায় দেওয়া হয়েছে। শ্রমিক নেতা আমিনুল হত্যায় মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হলেও মোস্তাফিজুরকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সূত্র-কালেরকন্ঠ


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
                                       
ফেইসবুকে আমরা