বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ০৬:৩৬ অপরাহ্ন

চকরিয়ায় ছিনিয়ে নেওয়া গ্রামীণ ব্যাংকের টাকা উদ্ধার:আটক-২

চকরিয়ায় ছিনিয়ে নেওয়া গ্রামীণ ব্যাংকের টাকা উদ্ধার:আটক-২

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥
চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের পাহাড়তলী এলাকায় গ্রামীণ ব্যাংকের এক মাঠকর্মীর কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে দুই ছিনতাইকারী।
পরে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে জনতা। পুলিশ তাদের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর বারোটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
আটক দুই ছিনতাইকারী হলেন চকরিয়া পৌরসভার সাত নম্বর ওয়ার্ডের বিনামারাস্থ নুরুল আমিনের ছেলে তৌহিদুল ইসলাম (২৩) ও পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের করাইয়াঘোনা গ্রামের মোহাম্মদ মানিকের ছেলে মোহাম্মদ সোহেল (২২)।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সকালে প্রতিসপ্তাহের মতো বরইতলী ইউনিয়নের পাহাড়তলী গ্রামস্থ কেন্দ্র থেকে ঋণের কিস্তির টাকা আদায় করে হারবাংস্থ গ্রামীণ ব্যাংকের শাখায় ফিরছিলেন সিনিয়র কেন্দ্র ব্যবস্থাপক বিষ্ণুপদ দাশ। দুপুর ১২টার দিকে তিনি পাহাড়তলী রাস্তার মাথায় পৌঁছলে আগে থেকে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা একদল ছিনতাইকারী তাকে গতিরোধ করে তার কাছ থেকে কিস্তির নগদ ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

বিষয়টি আঁচ করতে পেরে স্থানীয় জনতা এগিয়ে এসে ছিনতাইয়ে জড়িত দুইজনকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পওে পুলিশকে খবর দিলে থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল এসে দুই ছিনতাইকারীকে আটক করে।

গ্রামীণ ব্যাংক হারবাং শাখার ব্যবস্থাপক মো. ইউসুফ আলী খাঁন বলেন, ‘এ ঘটনায় সিনিয়র কেন্দ্র ব্যবস্থাপক বিষ্ণুপদ দাশ বাদী হয়ে ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।’

চকরিয়া থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর বলেন, ‘গ্রামীণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তির টাকা ছিনতাইয়ের খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এ সময় জনতার রোষানল থেকে আহত অবস্থায় দুই ছিনতাইকারীকে এবং ছিনিয়ে নেওয়া ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। আহত দুই ছিনতাইকারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ব্যাংকের পক্ষ থেকে লিখিত এজাহার দিলে মামলা নেওয়া হবে।’


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM