বাংলাদেশ, , শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

পেকুয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত

আলোকিত কক্সবাজার ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০১৫-১০-০৪ ২৩:১৪:২৯  

এস.এ.ছগির আহমদ আজগরী পেকুয়া সংবাদদাতা ॥
কক্সবাজারের পেকুয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ ও সমাজসেবক সরফরাজ আল নেওয়াজ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও পেকুয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার মোঃ হানিফ চৌধুরীর সঞ্চালনায় গতকাল ৩অক্টোবর শনিবার সকাল ১১টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এ সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা সম্পন্ন হয়। প্রায় শতাধিক মা, অভিভাবক ছাড়াও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্টিত এ কর্মসূচীতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পেকুয়া জিএমসি ইউনিষ্টিটিউশান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার এনামুল হক চৌধুরী, পেকুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি এস.এম.মাহাবুব ছিদ্দিকী, পেকুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার মোঃ আবুল হাসেম, বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন(বিওজেএ)র’ পেকুয়া সভাপতি সাংবাদিক ছগির আহমদ আজগরী, মাষ্টার মুবিনুল হক, নাজনীন হক, অভিভাবক কুলসুমা বেগম, মোঃ হাসান, আবদুল আজিজ, মাসুদ রানা, মামুনুর রশিদ, শিক্ষিকা রাহেলা বেগম, নন্দিতা রানী, জোবায়দা আক্তার ও নাজিম উদ্দিন নাজু প্রমুখ। এ মতবিনিময সভায় বক্তব্যদানকালে পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সরফরাজ আল নেওয়াজ চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকারের শাসনামলে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন, উন্নয়ন ও অগ্রগতি সাধন হয়েছে। সারাদেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্টানে সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ধরনের সূযোগ সুবিধা চালু হওয়ায় বিশ^বাসীর সাথে তাল মিলিয়ে চলার মতো করে শিক্ষার্থীদের গড়ে তোলার ধারা প্রচলিত হওয়ায় দেশ ও জাতীর শিক্ষা বঞ্চিতের কলংক মুক্তের ক্ষেত্র বাড়ছে। এ সূযোগ সুবিধাকে কাজে লাগাতে সকলকে মনোযোগী হতে হবে। তিনি স্কুল পড়–য়া শিক্ষার্থীদের নিয়মিত ক্লাস উপস্থিতি নিশ্চিত সহ জ্ঞানার্জনের বিষয়ে খোঁজ খবর রাখতে সকল ছাত্র ছাত্রীর পিতা মাতা, অভিভাবক, শিক্ষক শিক্ষিকা সহ পাড়া-প্রতিবেশীরও অধিকার রয়েছে বলে মন্তব্য করেন। জিএমসি স্কুলের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার এনামুল হক চৌধুরী স্কুল পড়–য়া ছেলে-মেয়েদের বিদ্যার্জনের ধারাবাহিকতা নিশ্চিতে বর্তমান সরকারের নেয়া প্রতিটি পদক্ষেপের ভুয়সী প্রশংসা করে বলেন, স্বাধীনতা পূর্বাপর কোন সরকারের আমলেই এধরনের সূযোগ সুবিধা চালু করাতো দূরে থাক তা গ্রহনের সাহসিকতাও দেখাতে পারেনি মন্তব্য করে বলেন, বিদ্যালয় পড়–য়া প্রতিটি ছাত্র ছাত্রীর লেখাপড়া ছাড়াও সকল বিষয়ে শিক্ষক শিক্ষিকার পাশাপাশি মা-বাবা ও তাদের পাড়া প্রতিবেশীদেরও খোঁজ খবর নেয়া ও পরামর্শ দেয়ার সমান অধিকার রয়েছে বলে জানান। পেকুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার আবুল হাসেম পেকুয়া কলেজ গেইট চৌমুহুনী ও তার আশপাশের এলাকাকে পল্লী ডিপ্লোমেটিক জোন মন্তব্য করে বলেন, এই এলাকার আধ কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে থানা, উপজেলা প্রশাসন, হাসপাতাল, দু’দুটি কলেজ ছাড়াও একাধিক গুরুত্বপূর্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান। অথচ সময়ে অসময়ে এসব প্রতিষ্টানের আশেপাশে বখাটে ও খারাপ প্রকৃতির অসামাজিক লোকজনের উৎপাত উপদ্রব বিদ্যমান থাকায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে প্রায় সকলেই। এবিষয়ে যেমন সকলের সমন্বিত পদক্ষেপ গ্রহণ জরুরী তেমনি সকল পর্যায়ে শিক্ষা সেবার মান বাড়াতে প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের মতো উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকাদেরও সরকারী বেসরকারী নানামুখী প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহন উচিৎ বলে জানান। অতিথি বক্তা পেকুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি এস.এম.মাহাবুব ছিদ্দিকী দেশে বঙ্গবন্ধুর পর উপজেলা পরিষদ প্রবর্তক সাবেক রাষ্ট্রপতি পল্লী বন্ধু হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদই একমাত্র রাষ্ট্রপ্রধান যিনি অস্ত্র ও সন্ত্রাসের বদলে শিক্ষার্থীদের কলম হাতে মনোযোগীতা নিশ্চিত করতে এদেশে ছাত্র রাজনীতি পরিহারের আহব্বান জানিয়েছিলেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, চকরিয়া-পেকুয়া জাপা নেতা হাজ¦ী মুহাম্মদ ইলিয়াছ এমপি সংসদ সদস্য পদে অধিষ্টিত হওয়ায় এতদাঞ্চলের শিক্ষা প্রতিষ্টানগুলোকে আদর্শিক পাঠশালায় পরিণতের সূযোগ চালু হয়েছে। তিনি এ সূযোগকে কাজে লাগানোর জন্য সকলের প্রতি উদ্ধার্থ আহব্বান জানান। অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভা শেষে উপস্থিত সূধী সমাবেশকে আপ্যায়ন করা হয়।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
                                       
ফেইসবুকে আমরা