শনিবার, ১৩ Jul ২০২৪, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন

সিরিয়ায় রাশিয়ার অভিযান সন্ত্রাসবাদকে উস্কে দেবে :যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন জোট

সিরিয়ায় রাশিয়ার অভিযান সন্ত্রাসবাদকে উস্কে দেবে :যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বাধীন জোট

অনলাইন বিজ্ঞাপন

আলোকিত কক্সবাজার ডেক্স॥

রাশিয়ার বিমান হামলা সিরিয়ায় সন্ত্রাসবাদকে উস্কে দেবে বলে যৌথ বিবৃতি দিয়েছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট। এই বিমান হামলার মাধ্যমে রাশিয়া মূলত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ সরকারের বিরোধীদের দমনের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

শুক্রবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, তুরস্কসহ জোটের এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, সিরিয়ায় মাথাচাড়া দিয়ে ওঠা জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে হামলার নাম করে সেখানে আসাদ বিরোধীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া। তবে রাশিয়ার পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আসাদ বিরোধী নয়, বরং আইএসের বিরুদ্ধেই তারা বিমান হামলা চালাবে। রাশিয়ার এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, আইএসের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া বিমান হামলা তিন থেকে চার মাস স্থায়ী হতে পারে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটির প্রধান এলেক্সি কুসকোভ বলেন, আইএসের বিরুদ্ধে অভিযানের নামে মার্কিন বাহিনী এতোদিন শুধু নাটক করে এসেছে। তবে আইএসের বিরুদ্ধে রাশিয়ার এই অভিযান অনেক বেশি কার্যকর হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।
ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাসোঁয়া ওঁলাদ ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমি পুতিনের মধ্যে প্যারিসে অনুষ্ঠিত দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পরই এই বিবৃতি দিলো মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট। তারা ইউক্রেন ইস্যুতে বৈঠক করার কথা থাকলেও সিরিয়ার চলমান ঘটনাবলী নিয়েই বেশি আলোচনা করেন দুই নেতা।
রাশিয়ান বাহিনী গত বুধবার থেকে সিরিয়ায় বিমান হামলা শুরু করেছে। সিরিয়ান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রাশিয়ান বাহিনী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে ১৮টি বিমান হামলা চালিয়েছে। এসব হামলার বেশিরভাগই হামা এবং ইদলিব প্রদেশে চালানো হয়েছে। তবে এই প্রদেশগুলোতে আইএসের উপস্থিতি তুলনামূলকভাবে কম। সিরিয়া যুদ্ধের রাজনৈতিক এবং সামরিক ঘটনাবলী বিষয়ক একটি সূত্র বলেছে, রাশিয়ার বিমান হামলার পাশাপাশি অচিরেই সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও এর মিত্রদের স্থল অভিযান শুরু হতে পারে। সিরিয়ার ইদলিব এবং হামায় স্থল অভিযানের সম্ভাবনা রয়েছে। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ সরকার বিদ্রোহীদের কাছে যে সমস্ত অঞ্চল খুইয়েছে তা পুনরুদ্ধার করাই এ অভিযানের লক্ষ্য বলে মনে করা হচ্ছে।
তবে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাশিয়ান বাহিনী বৃহস্পতিবার আইএসের ঘাঁটি হিসাবে পরিচিত রাক্কাতে জোরালো হামলা চালিয়েছে। ঐ হামলায় বেশ কয়েকজন আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছে।
এদিকে ফ্রান্সের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আইএসের বিরুদ্ধে হামলার কথা বলে রাশিয়া আসাদবিরোধী বিভিন্ন গ্রুপের ওপর হামলা চালাচ্ছে। তবে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর মতো একই সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর ওপরই রাশিয়া হামলা চালাচ্ছে। প্রসঙ্গত, চার বছরের গৃহযুদ্ধে সিরিয়ার এখন পর্যন্ত আড়াই লক্ষাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। এছাড়া গৃহহীন মানুষের সংখ্যা এক কোটি ছাড়িয়ে গেছে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Desing & Developed BY MONTAKIM