শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ০৩:২৮ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আলোকিত কক্সবাজার অনলাইন পত্রিকার  উন্নয়ন কাজ চলছে ; সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

শিল্পী কত টাকা আয় করলে কোটি টাকার গাড়ি, গাড়ি কেনা যায়

ডেস্ক নিউজ:
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

একটা শিল্পী কত টাকা ইনকাম করলে ৫ কোটির গাড়ি, ৪ কোটি গাড়ি কেনে? কত টাকা ইনকাম করলে মাসে দুইবার সিঙ্গাপুর যায়? এমনই প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন দেশের চিত্রনায়িকা অরুণা বিশ্বাস। একটি রেডিও অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এমন প্রশ্ন করেন তিনি। এও বলেন তিনি যে প্রশ্ন সাংবাদিকদের করা উচিৎ ছিল, যে বিষয়টি দুদকের করা উচিৎ ছিল সেটা আজ তাকে করতে হলো।

অরুণ আবিশ্বাস বলেন, বর্তমান সময়ে দেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে শাকিব খান সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক প্রাপ্ত নায়ক, কই শাকিব তো এমন শো অফ করতে পারে না।

তানভীর তারেকের উপস্থাপনায় জাগো এফ এম-এর রাতাড্ডা নামক অনুষ্ঠানে এসে এসব প্রশ্ন তোলেন একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা অরুণা বিশ্বাস।

একসময়ের রূপালি পর্দার জনপ্রিয় এই নায়িকা বলেন, অরুণা বিশ্বাস নিজের পার্টি সম্পর্কে বলেন, আমার পার্টি মানে কিন্তু ক্লাব টেলাব না। আমার পার্টি মানে কিন্তু রাতে রাতে বাইরে যাওয়া না। আমার পার্টি হলো ঘরে। আমার পার্টি হলো ভাত মাছ পোলাও মাংস, ঘরে আড্ডা মারা- এই পর্যন্তই। আমি ক্লাবে যাই না। আমি ক্লাব চিনিও না। হইয়তো প্রফেশ্নাল কারণে যাই। সিনেমার কোনো প্রোগ্রাম আয়োজন করা হলে যাই। কিন্তু মাথায় ক্লাব থাকে না।

অরুণা বলেন, গার্ডিয়ান লেস তো একটা বিষয় থাকেই। পারিবারিকভাবেই তো অনেকে গার্ডিয়ানলেস। অনেকের গার্ডিয়ান নেই। আমার বাবা ছিল না। তাই বলে কিন্তু আমার পদস্খলন হয়নি। এখন বলতেই পারো পার্টিতে গেলে খারাপ নাকি, তা নয়। তবে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে চেক অ্যান্ড ব্যালেন্সের প্রয়োজন আছে। স্কুলিঙের ব্যাপারটা আমি আমার মায়ের কাছ থেকে পেয়েছি। আমি শিল্পী, আমার অনেক কর্তব্য রয়েছে।

তিনি বলেন, আজকে শিল্পীদের নিয়ে কথা উঠছে। আজকে কেন কথা উঠছে? আগে কেন কথা ওঠে নাই? একজন শিল্পী কত টাকা ইনকাম করলে ৫ কোটি টাকার গাড়ি চালাতে পারে, ৫ কোটি টাকার গাড়ি কিনতে পারে। আমি বলছি, আমার ১০-১২ টা ছবি করার পরে একটা গাড়ি কিনতে হয়েছে। তাও অনেক কম দামে ঝক্কি ঝামেলা পোহানোর পরে।

আয়ের উৎস সম্পর্কে প্রশ্ন তুলে অরুণা বিশ্বাস বলেন, অনেকেই বলতে পারে আমি জেলাস। হ্যাঁ আমি জেলাস। যে মেয়েকে আমি দেখেছি ১০০ টাকার জন্য দাঁড়িয়ে থাকতে। সেই মেয়ে যখন কদিন পরে ৬ তলা বাড়ির মালিক হয়ে যায়। প্রতিদিন সিঙ্গাপুরে যাচ্ছে, এই প্রশ্ন সামাজিকভাবে কারো মনে প্রশ্ন আসে না? এতো দুদক আছে, কারো মনে প্রশ্ন আসে না? সাংবাদিকদের মনেও প্রশ্ন আসে না? তাহলে বলে নাই কেন, লিখে নাই কেন? এই দ্বায়ভার সকল শিল্পীর ওপর কেন আসবো।

সূত্র-কালেরকণ্ঠ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Design and Develop By MONTAKIM
themesba-lates1749691102