শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আলোকিত কক্সবাজার অনলাইন পত্রিকার  উন্নয়ন কাজ চলছে ; সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

বাংলাবাজারে প্রবাসীর কাছে চাঁদাবাজি: থানায় অভিযোগ!

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৬১ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী বাংলাবাজার এলাকায় দুবাই প্রবাসীর কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় চিহ্নিত চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে। ভোক্তভোগী দুবাই প্রবাসী ছুরুত আলম চাঁদা দাবির ঘটনায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তিনি

কক্সবাজার সদরের পিএমখালী ইউনিয়নের বাংলাবাজার মরহুম বদরুজ্জামানের ছেলে।

থানায় দেয়া অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি দেশে আসেন ভোক্তভোগী ছুরুত আলম। গত ৩০ আগস্ট সকালে দিনমজুর দিয়ে নিজের ক্রয়কৃত ভোগ দখলীয় জমি সংস্কার করতে যান। এ সময় একাধিক মামলার আসামী একই এলাকার মরহুম আমির হামজার ছেলে ছিদ্দীক আহমদ প্রকাশ চৌধুরী তার তার ভাই মিজানুর রহমান ও আমিন উল্লাহ প্রবাসির নিকট দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। অন্যথায় সংস্কার কাজ করতে দিবে না বলে হুশিয়ার করেন।

চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় এক পর্যায়ে প্রবাসী ছুরুত আলম ও তার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে দেশীয় তৈরি অস্ত্র নিয়ে হামলা করতে আসেন চৌধুরী।

তাদের হামলা থেকে রক্ষা পেতে প্রবাসি ছুরুত আলম ও তার স্ত্রীসহ পরিবার অন্যান্য লোকজন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে আসেন। এ ঘটনায় চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভোক্তভূগী ছুরুত আলম।

তিনি জানান, ২০১৩ সালে একটি জমি ক্রয় করে টিনশেড ভাড়া বাসা নির্মাণ করেন তিনি। কিন্তু বাড়িটি সংস্কার করতে গেলে অভিযুক্তরা বাঁধা দেয়। এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলছে না। এরআগেও বিভিন্ন সময় আমার কাছে চাঁদা দাবি করতো তারা। কিন্তু টাকা না দেয়ায় সংস্কার করতে আসা দিন মজুর ও মিস্ত্রীদের উপর হামলা চালান তারা। এমন কি আমার ভাড়া বাসায় বসবাসকারীদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করে যাচ্ছে। আমি বিদেশে থাকা অবস্থায় গোপনে আমার সীমানা প্রাচীরের গাছ কেটে বিক্রি করে দিয়েছে তারা। এসবের প্রতিবাদ করলে দেশী তৈরি অস্ত্র নিয়ে হামলা করতে ত্যাড়ে আসে।

তিনি আরো বলেন, হামলার ঘটনায় আইনের আশ্রয় নিলে আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানিসহ হত্যার হুমকিও দিচ্ছে। এমনও বলতে শোনেছি নিজের স্ত্রীকে হত্যা করে আমাকে ফাঁসাবে। আমার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আমাকে বিদেশ যেতে বাঁধা প্রদান করবে।

এ ঘটনায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভোক্তভূগী প্রবাসি। তিনি চিহ্নিত চাঁদাবাজদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ছিদ্দীক আহমদ প্রকাশ চোধুরী জানান, আমি চাঁদা দাবী করি নাই, বরং আমার শত বছরের ভোগদখলীয় জায়গা দখলের পায়তারা করছে তারা। আমি এবং আমার বউকে মেরে আহত করেছে। এ বিষয়ে আমরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Design and Develop By MONTAKIM
themesba-lates1749691102