বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
আলোকিত কক্সবাজার অনলাইন পত্রিকার  উন্নয়ন কাজ চলছে ; সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

ছাত্রলীগ সভাপতির প্রশ্ন-শেখ মুজিব কে ? (ভিডিওসহ)

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২১৭ বার পড়া হয়েছে

ওয়ার্ড ছাত্রীগের সভাপতির দায়িত্ব নিয়েই জানতে চাইলেন, ‘শেখ মুজিব কে’। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) উখিয়া উপজেলার ছাত্রলীগের আওতাধীন পালংখালী শাখার আওতাধীন ৫ নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত সভাপতি আজিজুর রহমানের একটি ভিডিওতে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এমন মন্তব্য করেন তিনি। ২২ সেকেন্ডের ভিডিওটি ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, একটি ঔষুধের দোকানে আজিজুর রহমানসহ কয়েকজন বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন।

অভিযুক্ত আজিজুর রহমান উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের থাইংখালী গ্রামের হাকিমপাড়া এলাকার বাট্টু মিয়ার ছেলে।

তাদের আলাপচারিতায় কোন একজন বলেন, ‘আমি শেখ মুজিব ছাড়া কাউকে প্রছন্দ করি না। এর প্রতি উত্তরে আজিজুর রহমান বলে উঠেন, শেখ মুজিব হদ্দে ইবা হন ? নেতৃত্ব দিএ সমস্যা কি ? ও কি দেশ ইয়ান স্বাধীন গইজ্জে ? নেতৃত্ব দিয়ে ঠিক আছে। আর ওনে যুদ্ধ গইজ্জে, ও জিঅলত আচ্ছিল। দেশ স্বাধীন হই বাদে বাইর হয়ে দে’।

(আমি শেখ মুজিব ছাড়া কাউকে প্রছন্দ করি না। শেখ মুজিব কে ? নেতৃত্ব দিয়েছে সমস্যা কি ? তিনি কি দেশ স্বাধীন করেছে ? নেতৃত্ব দিয়েছে ঠিক আছে। বাকিরা যুদ্ধ করেছেন তিনি জেলে ছিলেন। দেশ স্বাধীনের পর তিনি বের হয়েছেন)।

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে তাদের কথোপকথনের ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়লে আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। দ্রুত ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে দ্রুত সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি আইনি ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি জানিয়েছেন তারা।

পালংখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মঞ্জুর বলেন, একজন দায়িত্বশীল ছাত্রনেতার মুখে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এ ধরনের বক্তব্য কখনো মেনে নেয়া যায় না। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে তাদের কথোপকথন শোনে আমি আমি হতবাক যেমন হয়েছি তেমনি দু:খও পেয়েছি। আমি আশা করি তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মকবুল হোসেন মিতুন বলেন, আমি উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি হলেও পালংখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন বিষয়ে আমার কোন ইচ্ছার প্রতিফলন হয়নি। সদ্য বিদায়ী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক আমাদের উপর তাদের ইচ্ছা চাপিয়ে দিয়েছিলেন। আমরা শুধুই স্বাক্ষর করেছি।

আর ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক কিভাবে ওয়ার্ড কমিটি কছেন, কাদের নেতা বানাচ্ছেন তাও আমাদের জানানো হচ্ছে না। যার কারণে ওয়ার্ড কমিটির নেতারা আমাদের কাছে অপরিচিতি। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি/সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশে অভিযুক্তকে বহিস্কার করতে ইউনিয়ন ছাত্রলীগকে বলা হয়েছে।

তিনি আক্ষেপ করে বলেন, সাংগঠনিক কার্যক্রমের চেয়ে পালংখালীতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্রে আমাদের অন্ধকারে রেখে কমিটি করা হচ্ছে। যা আড়ালে নিয়ন্ত্রণ করছেন সুবিধাবাজরা।

নাম প্রকাশন না করার শর্তে স্থানীয় আওয়ামী লীগ. যুবলীগ ও ছাত্রলীগের অসংখ্য নেতাকর্মী বলেন, ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইচ্ছে মতো অরাজনৈতিক ছেলেদের দিয়ে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হচ্ছে। অন্তরালে তা নিয়ন্ত্রণ করছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান জেলা ছাত্রলীগ’র যুগ্ন-সাধারণ স্পাদক আনোয়ার হোসেন এর বড়ভাই আলী আহমদ। তার প্রছন্দের লোকজনকে দিয়ে ওয়ার্ড কমিটি সাজাতে প্রয়োজনে জেলা ও কেন্দ্রকে ব্যবহার করেন তিনি।

অভিযোগ অস্বীকার করে সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আলী আহমদ বলেন, আমি ছাত্রলীগের সাবেক নেতা। সাইনিং অথরটি আমার হাতে নেই। সাবেক জেলা সভাপতি হিসেবে কেন্দ্রের সাথে আমার যোগাযোগ থাকতেই পারে। গতবারের মতো এবারও আমি ইউনিয়ন পরিষদে অবশ্যই আমি নির্বাচন করবো। এ জন্য আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচা চালানো হচ্ছে।

প্রচার হওয়া ভিডিও নিয়ে তিনি বলেন, বন্ধুরা বসে হয়তো দুষ্ঠামির ছলে ওয়ার্ড সভাপতি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এ কথাটি বলেছেন।

জানতে চাইলে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন এবং সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান বলেন, বিষয়টি আমরা জেনেছি। তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি/সাধারণ সম্পাদককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একই সাথে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ারও প্রক্রিয়া চলছে।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত আজিজুর রহমান বলেন, আমাদের আলোচনার ভিডিওটা কাটছাঁট করে আমার বক্তব্য ভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Design and Develop By MONTAKIM
themesba-lates1749691102