বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩৩ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আলোকিত কক্সবাজার অনলাইন পত্রিকার  উন্নয়ন কাজ চলছে ; সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

‘আগামী এক বছরে বদলে যাবে কক্সবাজার’

ওয়াহিদ রুবেল:
  • প্রকাশিত সময় : শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ১২৬ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজারকে সাজাতেই বঙ্গবন্ধু কন্যা যা যা করার সবই করছেন জানিয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পর্যটন খাতকে অগ্রাধিকার দিয়ে কক্সবাজারে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। তাঁর নেতৃত্বেই বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছে। পর্যটন খাতে নেয়া প্রকল্পগুলো দৃশ্যমান হলেই আগামী এক বছরের মধ্যে কক্সবাজার হবে বিশ্বের অন্যতম পর্যটন নগরী। বদলে যাবে কক্সবাজারের চেহরা।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাত নয়টায় কক্সবাজার শহরের অভ্যন্তরে গোলদীঘির সৌন্দর্য্য বর্ধনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি উপরোক্ত কথা বলেছেন।

মন্ত্রী বলেন, কক্সবাজার শহরের অভ্যন্তরে পরিত্যাক্ত তিনটি পুকুরকে বিনোদনের স্পট করে সাজানো হয়েছে। এটি উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে কক্সবাজারে পর্যটন ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে। কক্সবাজারে ভ্রমন করতে আসা পর্যটকরা এখানে সুন্দর মূহুর্ত কাটাতে পারবেন। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে শেখ হাসিনা আছে বলেই এটি সম্ভব হয়েছে। মাত্র এক বছরের মাথায় অব্যবহৃত তিনটি পুকুরকে দ্রুত সময়ের মধ্যে দৃষ্টি নন্দন করে সাজিয়ে তোলায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের প্রতি বিশেষভাবে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি। একই সাথে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ অনুরূপ প্রকল্প গ্রহণ করলে সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে স্থানীয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, কক্সবাজারে প্রায় ৩ লাখ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্প চলছে,এসব প্রকল্প শেষ হলেই কক্সবাজারের গুরুত্ব আরো বৃদ্ধি পাবে। দেশি বিদেশী পর্যটকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

শহরের প্রধান সড়কেরও বরাদ্দ পাওয়া গেছে জানিয়ে সাংসদ কমল বলেছেন, আজ শুক্রবার থেকে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সড়ক সংস্কার ও প্রশস্তকরণের কাজ শুরু করবে। আমরা সকলে সহযোগিতা করলে আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রধান সড়কের কাজও শেষ করা সম্ভব হবে।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রতিষ্ঠানের সচিব আবু জাফর রাশেদ।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বলেন, পর্যটন নগরী কক্সবাজারকে আধুনিক রূপে সাজানোর জন্য আমরা বদ্ধপরিকর। এ লক্ষ্যে কক্সবাজারের লালদীঘি, বাজারঘাটা ও গোলদিঘীর পুকুর সৌন্দর্য বর্ধনের পাশাপাশি কক্সবাজারের প্রধান সড়ক সংস্কারসহ প্রশস্তকরণ, পর্যটন নগরী কক্সবাজার জেলার মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন, বঙ্গবন্ধু থিম পার্ক, বঙ্গবন্ধু স্মার্ট সিটি বাস্তবায়নসহ আরো বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। উক্ত প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়নে সকলের সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি।

তিনি আরো বলেন, আজ ৯ অক্টোবর বিকাল ৪টায় হলিডে মোড়-বাজারঘাটা-লারপাড়া (বাস স্ট্যান্ড) প্রধান সড়ক সংস্কারসহ প্রশস্তকরণ প্রকল্প এবং কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আবাসিক ফ্ল্যাট উন্নয়ন প্রকল্পের নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে পুকুরের সৌন্দর্য্য উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে কক্সবাজারে ভ্রমণে আসা পর্যটক ও বিনোদন প্রেমীদের জন্য যুক্ত হয়েছে আরও একটি বিনোদন স্পট। এমনটাই দাবি করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

এ সময় অন্যন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ময়মনসিংহ-১০ এর সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এবং সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক।

উল্লেখ্য, কক্সবাজার শহরকে একটি পরিকল্পিত পর্যটন নগরী হিসেবে গড়তেই ৪৮ কোটি ৮৫ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা ব্যায়ে  শহরের লালদীঘি, গোলদীঘি ও বাজারঘাটাস্থ নাপিতা পুকুরকে কেন্দ্র করে সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Design and Develop By MONTAKIM
themesba-lates1749691102