মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
আলোকিত কক্সবাজার অনলাইন পত্রিকার  উন্নয়ন কাজ চলছে ; সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

‘অর্ধলাখ ভূমিহীন মানুষের বাসস্থান নিশ্চিত করতে হবে’ ‘বিশ্ব বসতি’ দিবসের সেমিনারে এমপি কমল

ওয়াহিদ রুবেল:
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ১১১ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, কক্সবাজারে অর্ধলাখ মানুষ ভূমিহীন। তারা সরকারি খাস জমিতে বসবাস করছে। ভূমিহীন এসব মানুষের জন্য বাসস্থান নিশ্চিত করতে হবে।

‘বিশ্ব বসতি’ দিবস উপলক্ষ্যে সোমবার (৫ অক্টোবর) কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেছেন।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্ণেল অব: ফোরকান আহমদ’র সভাপতিত্বে আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথি আরো বলেন, আমরা মানুষের পক্ষে কথা বলি, মানুষের জন্য কাজ করি। কাজ করতে গেলে অনেক সময় ভুল হতেই পারে। এতে কে কি বলছে তা দেখার সময় আমাদের নেই।

তিনি বলেন, কক্সবাজারে ৩ লাখ কোটি টাকার উন্নয়নের কাজ চলছে। উন্নয়নের কাজ চলাকালিন সময় জনগণকে কিছুটা বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। আশা করি অচিরেই মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুনাম রক্ষা করতে সবাইকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান করার আহ্বান জানিয়ে এমপি কমল বলেন, কক্সবাজারে অবৈধ দখলদার, চাঁদাবাজি কিংবা সরকারি দলের নাম ভাঙ্গিয়ে কোন অন্যায় বা অপরাধ সহ্য করা হবে না। এ জন্য সবাইকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে হবে। কারো ব্যক্তিগত অপরাধের দায়ভার আওয়ামী লীগ বা সরকার নিবে না। দুদক আমার বিরুদ্ধেও তদন্ত করেছিল। কিন্তু আমি কোন অপরাধের সাথে জড়িত ছিলাম না বলেই আমাকে দুর্নীতিবাজ হিসেবে প্রমাণ করতে পারেনি। কক্সবাজার আমাদের সম্পদ, এ সম্পদ রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের। কোন দুর্নীতিবাজদের স্থান কক্সবাজারে হবে না।

সভাপতির বক্তব্য প্রদানকালে কউক চেয়ারম্যান ফোরকান আহমদ বলেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের খাস জমিগুলো এক শ্রেণীর বিত্তবানদের দখলে। তারা আবার গরীব লোকদের কাছে জমি বিক্রি করে। আমরা এসবের বিরুদ্ধে কাজ করতে গেলে আমার নামে অপ-প্রচার চালানো হয়। কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। তবে, আমি কিছুই মনে করিনি। বরং তাদের অপ-প্রচারগুলো আমার চলার পথে সতর্ক হতে সহযোগিতা করেছে।

কক্সবাজারে কোন অবৈধ স্থাপনা করতে দিবে না কউক এমন কথা জানিয়ে তিনি আরো বলেন, কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে একটি সুন্দর, আধুনিক পরিকল্পিত কক্সবাজার গড়ে তুলতে চাই।

নিজেকে ও নিজের প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতি মুক্ত দাবি করে কউক চেয়ারম্যান বলেন, আমি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আমি দুর্নীতির বিরুদ্ধে থাকব। কাউকে দুর্নীতি করতে দিব না। কক্সবাজারে বিভিন্ন দলের নেতারাই বিভিন্ন আকাম কুকাম করে বেড়ান। সাধারণ মানুষ এসবের কিছুই করে না। আমি যদি কোন ভুল করে থাকি আপনার ভুলগুলো ধরে দিবেন। আমি শুদরে নিব। আমরা সকলে মিলে কক্সবাজারকে সাজাতে চাই। ইতিমধ্যে, জীববৈচিত্র রক্ষা, শহর আলোকায়ন, সবুজায়ন, পরিত্যাক্ত পুকুর সংস্কার করে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ ফিরে আনা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি কক্সবাজারের রাস্তাটা আধুনিকতার ছোঁয়া দিতেই কাজটি হাতে নিয়েছি। সকলের সহযোগিতা পেলে অতি দ্রুত সময়ে কাজ শুরু করবো। এবং তিন বছরের কাজ যেন দেড় বছরের মধ্য শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব আবু জাফর রাশেদ’র সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার বিধান চন্দ্র, নগর উন্নযন অধিদপ্তরের নাজিম উদ্দিন, কক্সবাজার জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (ডিএসবি) খন্দকার গোলাম শাহনেওয়াজ, জাসদ সভাপতি নাঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জহির উদ্দিন আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী, কক্সবাজার পৌরসভার সাবেক মেয়র নুরুল আবচার, কক্সবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রদীপ্ত খিসা, সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী, কউক’র সাবেক সদস্য ইঞ্জিনিয়ার বদিউল আলম, এনজিও কর্মকর্তা আবু মোর্শেদ চৌধুরী খোকা।

অনলাইন বিজ্ঞাপন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

অনলাইন বিজ্ঞাপন

নিবন্ধনের জন্য আবেদিত
Design and Develop By MONTAKIM
themesba-lates1749691102