অনিরাপদ ঈদগাঁও বাজার !

অনিরাপদ ঈদগাঁও বাজার !

ভাগ

এম আবুহেনা সাগর,ঈদগাঁও

জেলা সদরের গুরুত্ববহ বৃহত্তর বানিজ্যিক নগরী ঈদগাঁও বাজার এলাকা থেকে তদন্ত কেন্দ্রটি দূরবর্তী স্থানে স্থানান্তরিত হওয়ায় নিরাপত্তা চরম হুমকির মুখে পড়েছে। অবিলম্বে বাজার এলাকার নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশদল নিয়োগের দাবী জানান সচেতন ব্যবসায়ী মহল।

জানা যায়, কক্সবাজার সদর উপজেলার বিপুল জনসংখ্যা অধ্যুষিত বিশাল ঈদগাঁওয়ের আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে প্রতিষ্ঠিত পুলিশ ফাঁড়ি ক্রমান্বয়ে তদন্ত কেন্দ্রে রুপান্তরিত হওয়ায় ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রটি দীর্ঘ বছর ধরে বাজারের অস্থায়ী একটি ঘরে ছোট্ট পরিসরে আইন শৃংখলা রক্ষায় কাজ করে আসছিল । দেরীতে হলেও ঈদগাঁওর হাজার হাজার জনগণ ও প্রশাসন সংশ্লিষ্টদের প্রাণের দাবি ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রটি অবশেষে ইসলামাবাদের তেতুলতলীতে নিজস্ব জায়গার উপর বহু অর্থ ব্যয়ে ত্রিতল ভবনটি প্রতিষ্ঠা করছে। কিন্তু তদন্ত কেন্দ্রটি পুরাতন স্থান হতে দূরর্বতী নতুনস্থানে  স্থানান্তর হওয়ায় বাজারের নিরাপত্তার বিষয়টি ভাবিয়ে তুলছেন ব্যবসায়ীসহ সাধারন লোক জনকে। তবে সচেতন লোকজনের মতে, তদন্ত কেন্দ্রটি বর্তমান স্থান হতে স্থানান্তরিত হওয়ার ফলে পুরো বাজার এলাকাটি নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়ছে। এ বাজারে সাপ্তাহিক দুদিন হাট বাজার ছাড়াও প্রতিনিয়ত ৩০/৩৫ হাজার লোকজন প্রয়োজনীয় নানা কাজেকর্মে আসা যাওয়া করে। এমনকি সরকারী বে-সরকারী বেশ কয়েকটির মত ব্যাংক রয়েছে। এমনকি ঐসব ব্যাংকে লাখ লাখ টাকার লেনদেনও হয়ে থাকে। পাশাপাশি রয়েছে বহু বেসরকারী বীমা কোম্পানীও।

আবার এ বাজারে ৩/৪ টির মত হাসপাতাল রয়েছে। অন্যদিকে বৃহত্তর ঈদগাঁও বাজার ও বাসস্টেশন মিলে প্রায় চার হাজারের মত বিভিন্ন ব্যবসায়ীক প্রতিষ্টান রয়েছে। এছাড়াও ঈদগাঁওর পাশ্বর্বতী উপ বাজার সমুহে অসংখ্য দোকান রয়েছে। ব্যবসায়ীদের দাবী, তদন্ত কেন্দ্রটি অপরাপর ইউনিয়ন, বাজার ও স্টেশন থেকে দূরবর্তী হওয়ায় সাধারণ মানুষজন নিরাপত্তাহীনতায় পড়েছে। জেলার বৃহৎ এই বাজারে দৈনিক লক্ষ লক্ষ টাকার লেনদেন হয়ে থাকে। ব্যবসায়ীদের দিকে দৃষ্টি রেখে হলেও বাজার এলাকায় পুলিশ দল নিয়োগে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট আহবান জানান।

এ ব্যাপারে ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের সভাপতি রুপালী সৈকতকে জানান, বাজার এলাকায় দিবারাত্রী একটি পুলিশ দল নিয়োগ দিলে ব্যবসায়ীরা নিশ্চিন্তে ব্যবসা বানিজ্য করতে পারতো। তবে দপ্তর সম্পাদক জানান, ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রটি অন্যত্রে চলে যাওয়ায় পুরো বাজারের ব্যবসায়ী সমাজ হুমকির মুখে পড়ছে। বাজারের বিপুল সংখ্যক দোকানপাট নিরাপত্তা হীনতায় রয়েছে। তিনি বাজারের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ নিয়োগের দাবী জানান। কালিরছড়া বাজার ব্যবসায়ী কমিটি সভাপতির মতে, তদন্ত কেন্দ্রটি পূর্বের স্থান থেকে অনত্রে চলে যাওয়ার জন নিরাপত্তা হুমকিতে রয়েছে।

ঈদগাঁও ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক জানান- ঈদগাঁও বাজারসহ পার্শ্ববর্তী উপ-বাজারের ব্যবসায়ী, ব্যাংক-বীমা,হাস পাতাল,শিক্ষা প্রতিষ্টানসহ সর্বপুরি নিরাপত্তা নিশ্চিত করণে ঈদগাঁও বাজারে একটি পুলিশ দল একান্ত জরুরী।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ