শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সাংবাদিকদের উপর হামলা করেছিল ঢাকা কলেজ ছাত্রদল

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সাংবাদিকদের উপর হামলা করেছিল ঢাকা কলেজ ছাত্রদল

ভাগ

নিউজ ডেস্ক:

কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে এক সাংবাদিকের উপর নির্মম হামলার ঘটনায় সারাদেশে নিন্দার ঝড় উঠেছে। রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় রোববার ৫ আগস্ট শিক্ষার্থীদের বিশাল জমায়েতে সাংবাদিকদের উপর এলোপাতাড়ি হামলার ঘটনায় হামলাকারীদের পরিচয় প্রকাশ পেয়েছে তিনি হলেন ঢাকা কলেজ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের যুগ্ন আহ্বায়ক ইব্রাহিম।তার নেতৃত্বেই এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সাংবাদিকের উপর হামলাকারী ইব্রাহিমএর পুরো নাম হচ্ছে ইব্রাহিম কার্দি, তিনি ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ঢাকা কলেজ কমিটির তালিকা থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

গোপন সূত্রে জানা যায়, এই হামলা চালানো হয় পুলিশের সাথে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের সময়। যাতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উপর দায় চাপিয়ে তাদেরকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে সাধারণ জনগণের কাছে উপস্থাপন করা যায়। কিন্তু ছাত্রদলের এই চক্রান্ত সফল হয় নি। হামলায় আটক এক ছাত্রদল কর্মী আদালতের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

জবানবন্দিতে আটক সেই ছাত্রদল কর্মী জানান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরুর নির্দেশে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বেধড়ক পেটান ঢাকা কলেজ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। এ সময় তাঁদের হাতে ছিল লাঠি-রড-রামদা-চ্যালা কাঠ। পরিচয় লুকাতে মাথায় ব্যবহার করা হয়েছিল হেলমেট।

এদিকে বিএনপি-জামায়াত প্রচার করতে চেয়েছিল যে সাংবাদিকদের উপর হামলাকারী ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের নেতা। কিন্তু অনুসন্ধানে উঠে এসেছে হামলাকারী ইব্রাহীম আসলে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ঢাকা কলেজ শাখার যুগ্ন আহ্বায়ক। অপরদিকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ঢাকা কলেজ শাখার যে কমিটির তালিকা সেখানে ইব্রাহীম নামে কোনো নামই নেই। অথচ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ঢাকা কলেজ শাখার কমিটির তালিকাতে ইব্রাহীম শীর্ষ নেতা হিসেবে পরিচিত। ওই তালিকা দেখলেই বিষয়টি পরিস্কার বুঝা যায় ছাত্রলীগকে ফাঁসাতে এই হামলা পরিকল্পিতভাবে করা হয়েছিল।সূত্র-বাংলা নিউজ পোস্ট।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ