আন্দোলনে জীবন দিতে তারেকের নির্দেশ, নেতাদের প্রত্যাখ্যান

আন্দোলনে জীবন দিতে তারেকের নির্দেশ, নেতাদের প্রত্যাখ্যান

ভাগ

নিউজ ডেস্ক:

চলমান নিরাপদ সড়কের দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নেতা-কর্মীদের জান-মালের চিন্তা না করে একাত্মতা ঘোষণার আহ্বান দুপায়ে ঠেলে দিয়েছেন বিএনপি নেতা-কর্মীরা। তারেক রহমান আন্দোলনে সর্বস্ব দিয়ে বিজয় ছিনিয়ে ঘরে ফেরার নির্দেশ দিলেও তারা তাতে সফল হননি। তারেক রহমানের আদেশকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে সরকারের পদক্ষেপগুলো মেনে নিয়ে সাধুবাদ জানিয়েছে তৃণমূল বিএনপি। অন্যের ঘর পুড়িয়ে নিজেদের রুটি ভেজে খাওয়ার দিন শেষ হয়েছে বলেও মন্তব্য করেছেন দলটির একাধিক সিনিয়র নেতা।

পল্টন বিএনপি সূত্রে জানা যায়, শিক্ষার্থীদের অরাজনৈতিক আন্দোলনকে নিজেদের করে নিয়ে সরকার পতন করার জন্য ৭ আগস্ট দলটির সিনিয়র নেতা মির্জা ফখরুল, রিজভী আহমেদ, মির্জা আব্বাস, মওদুদ আহমদ, নজরুল ইসলাম খানকে টেলিফোনে নির্দেশ দেন তারেক। তারেকের মতে, সরকার পতনের উপযুক্ত সময় এসেছে। আন্দোলনকে যেকোন মূল্যে কাজে লাগাতে হবে। প্রয়োজনে জীবন দিয়ে হলেও রাস্তায় নেমে পুলিশ, ছাত্রলীগ, আওয়ামী লীগকে আটকাতে হবে। জীবনের মায়া করা চলবে না। জীবন চলে গেলে পরবর্তীতে পরিবারের সদস্যদের পুনর্বাসন ও নগদ অর্থ দেওয়া হবে বলেও প্রলোভন দেখান তিনি।

তারেক রহমানের নির্দেশনা পাওয়ার পর নেতারা ঘরোয়া একটি বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠক সূত্রে জানা যায়, তারেক রহমানের নির্দেশনা মানতে রাজি নন নেতারা। একটি যৌক্তিক আন্দোলনকে বিতর্কিত করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার কোন অর্থ দেখছেন না দলটির সিনিয়র নেতারা।

মওদুদ আহমদ তো উত্তেজিত হয়ে তারেক রহমানকে বুদ্ধিহীন প্রতিবন্ধী হিসেবেও উল্লেখ করে বলেন, কখন কোথায় ফায়দা নিতে হয় সেই জ্ঞান তারেক রহমানের নেই। থাকলে বিদেশে পালিয়ে মানুষের অনুদান ও চাঁদার টাকায় বেঁচে থাকতে হতো না তাকে। কোমলমতি ছাত্রদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করার পরামর্শের জন্য তারেককে ইডিয়ট ও বাস্টার্ডড বলেও গালি দেন মওদুদ। মওদুদ অতিউৎসাহী হয়ে তারেককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করলে উপস্থিত অন্যান্য নেতারা মওদুদের উপর চড়াও হন। নজরুল ইসলাম খান মওদুদ আহমদকে ধাক্কা দিয়ে বৈঠক থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় মওদুদ আহমদ সবার কাছে হাতজোড় করে নিঃশর্ত ক্ষমা চান।

এদিকে তারেক রহমানের আদেশ অমান্য করে মাঠে না নামার ঘোষণা দিয়েছেন দলটির সিনিয়র নেতারা। বারবার ভুল করে বিএনপিকে জনগণের কাছে ছোট করার জন্য তারেক রহমানকে দোষারোপ করছেন তারা। ফলে তার আদেশ ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপির কেন্দ্রীয় একাধিক সিনিয়র নেতা ও  তৃণমূল বিএনপির কর্মীরা।সূত্র- বাংলা নিউজ পোস্ট

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ