সরকারের তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের কারণে ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেল দেশ

সরকারের তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের কারণে ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেল দেশ

ভাগ

নিউজ ডেস্ক:

গত রোববার ২৯ জুলাই দুপুরে কুর্মিটোলায় বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের দুটি বাসের রেষারেষিতে দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় সরকারের তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের কারণে দেশ স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি-জামায়াতের ভয়ংকর ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে। এরপরও নাশকতার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে অর্থ প্রদান করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের রাস্তায় নামিয়ে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার উস্কানি দিয়ে যাচ্ছে একটি চক্র।

সূত্রে জানা যায়, দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় সরকার যেসকল তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এরইমধ্যে নিহত শিক্ষার্থীদের পরিবারকে স্বয়ং বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ লাখ টাকা করে সঞ্চয়পত্র প্রদান করেছেন। শহীদ রমিজউদ্দিন স্কুলের জন্য পাঁচটি স্কুল বাস বরাদ্দ করা হয়েছে, স্কুল সংলগ্ন সড়কে আন্ডারপাস নির্মাণের ব্যবস্থা করা হয়েছে, দেশের সকল স্কুল সংলগ্ন সড়কে স্পীডব্রেকার নির্মাণ করা হবে, স্কুলের পাশে বিশেষ ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতির মাধ্যমে এক ভিন্নধর্মী দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

এদিকে আইন মন্ত্রণালয় এই মর্মান্তিক ঘটনার সাথে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। ইতোমধ্যেই দ্রুত মামলা শেষ করার বিধান রেখে আইন সংশোধন করা হয়েছে। জাবালে নূর পরিবহণের রোড পারমিট বাতিল করা হয়েছে। সেই সাথে আগামী চব্বিশ ঘন্টার মধ্যে ফিটনেসবিহীন সকল পরিবহনের রোড পারমিট বাতিল করা হবে বলে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

সরকারের পক্ষ থেকে লাইসেন্সবিহীন ভুয়া ড্রাইভারদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে নৌপরিবহণ মন্ত্রী ইতোমধ্যে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন, জাবালে নূর পরিবহনের মালিক শাহাদাৎ হোসেনের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে।

সরকারের এত সব তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের পরও বিএনপি-জামায়াতের মদদে একটি মহল কোমলমতি ছাত্রছাত্রীদের মাঠে নামিয়ে ফায়দা হাসিল করতে চাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন সচেতন অভিভাবক মহল।সূত্র-বাংলা নিউজ পোস্ট।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ