উখিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত-৪: আহত-৪

উখিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় শিশুসহ নিহত-৪: আহত-৪

ভাগ

বিশেষ প্রতিবেদক:

 

উখিয়ার বালুখালী টিভি টাওয়ার এলাকায় অতিরিক্ত বাঁশ বোঝায় ট্রাক উল্টে গিয়ে ইজিবাইক এবং সিএনজি চাপা দেয়ায় শিশুসহ ৪ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৪ জন। ররিবার সকাল সাড়ে ৯ টায় এ দূর্টনা ঘটে। নিহতদের মাঝে ৩ জন রোহিঙ্গা এবং একজন স্থানীয়।

 

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ইউএনও) মো. নিকারুজ্জাম্মান তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, সড়কের একটি গর্তে পড়ে বাঁশবাহী চলন্ত ট্রাক উল্টে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে দ্রæত দূর্ঘটনাস্থল থেকে শিশুসহ ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। এছাড়া আরো ৪ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে সেবা দেয়া হচ্ছে। উদ্ধার হওয়া মরদেহের মধ্যে ৩ জন মহিলা ও ১ জন শিশু বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।

 

নিহতরা হলেন, উখিয়ার বালুখালী পান বাজার পশ্চিম পাড়া এলাকার মঞ্জুর আলমের স্ত্রী রোজিনা আক্তার (২৬)। তিনি এনজিও সংস্থা মুক্তি পরিচালিত স্কুলের সুপারভাইজার ছিলেন। নিহতের ভাই ফেরদৌস করিম তার মরদেহ সনাক্ত করেছেন। বালুখালী ক্যাম্পের এইচ বøকের মাহমুদুর রহমানের স্ত্রী নুর কায়েস (২৫), লেদা ক্যম্পের আব্দুল হামিদের স্ত্রী তছরিন আক্তার (২০) এবং হ্নীলা আলী খালী ক্যাম্পের আব্দুল হামিদের শিশু কন্যা আশরাফ আক্তার (২৬দিন)।

 

আহরা হলেন,মরিচ্যা চেকপোস্ট এলাকার হেলাল উদ্দিন (২১) পিতা অজ্ঞাত, টেকনাফ নাইক্ষ্যং পাড়া এলাকার হোসেন আহমদের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার (২৭), বালুখালী বি বøাকের আব্দুল্লাহর পুত্র হমিদুর রহমান (১৩), একই বøাকের আলী জোহরের স্ত্রী আনোয়ারা (২৫)।
দূর্ঘটনার পর প্রায় ২ ঘন্টা উখিয়া-টেকনাফ সড়কের যান চলাচল বন্ধ ছিল। তবে দুপুর ১২ টার পর থেকে কিছুটা স্বাভাকি হয়ে এসেছে।

 

প্রত্যেক্ষদর্শী শেখ রুবেল জানান, সকাল অনুমান সাড়ে ৯টার দিকে অতিরিক্ত বাঁশ বোঝায় একটি ট্রাক উখিয়ার টিভি টাওয়ার এলাকায় প্রধান সড়কের গর্তে পড়ে উল্টে গিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি এবং ইজিবাইকে চাপা দেয়। ট্রাকের চাপায় গাড়ি দুটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে মারা যায় শিশুসহ চারজন। মূলত চালকের অসাবধনতার কারণে এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। দূর্ঘটনার পর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত বাংলাদেশ সেনা বাহিনী এবং পুলিশের কর্মকর্তারা এসে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন।

 

উখিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: খাইরুজ্জামান বলেন, দূর্ঘটনার খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে সেনা বাহিনীসহ স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আমরা নিহত এবং আহদের উদ্ধর করি। অতিরিক্ত বাঁশ বোঝায় ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারালে এ দূর্ঘটনা হয়। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ