মশার যন্ত্রণা থেকে বাঁচতে গিয়ে অঙ্গার হলো বৃদ্ধা-শিশু

মশার যন্ত্রণা থেকে বাঁচতে গিয়ে অঙ্গার হলো বৃদ্ধা-শিশু

ভাগ

বিশেষ প্রতিবেদক:
মশার যন্ত্রণা থেকে বাঁচতে জ্বালানো কয়েলের আগুনে অঙ্গার হয়েছে ৯০ বছর বয়সী এলেনা খাতুন ও  ৪ বছরের রুমা আক্তার। কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাঞ্জরপাড়ায় আব্দু শুক্কুরের বাড়িতে বুধবার ভোরে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
আগুনে  আবদু শুক্কুর, খাইরুল বশর ও  বদিউজ্জামানের বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন আরো ৬ জন। ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার।
অগ্নিদগ্ধরা হলেন, খাইরুল বশর(৩৫)বদিউজ্জামান(৩০)ফাতেমা খাতুন(২৭) বুসরা আক্তার(১২) , রুমা আক্তার (৪) রুনা আক্তার(৩)সুমাইয়া আক্তার(১০)। তাদেরকে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠালে অগ্নিদগ্ধ  রুমা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
পুলিশ সূত্র জানায়, রাতে আবদু শুক্কুরের বাড়িতে এলেনা খাতুন ও রুমাদের বিরক্তিহীন ঘুমের আয়োজনে কয়েল জ্বালানো হয়। সেই কয়েল থেকে অসাবধানতা বশত প্রথমে বিছানায় ও পরে অন্যত্র আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এর আগেই ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে পুড়ে বৃদ্ধা এলেনার মৃত্যু হয়। আর চমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রুমা আক্তার।
টেকনাফ থানার ওসি রনজিৎ বড়ুয়া বলেন, কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে। এতে ঘটনাস্থলে বৃদ্ধা ও চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
টেকনাফ উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. রবিউল হাসান জানান , ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে সরকারী অনুদান দেয়া হবে।
ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ