অবশেষে জুটি ভাঙলেন শুভাশীষ

অবশেষে জুটি ভাঙলেন শুভাশীষ

ভাগ

স্পোর্টস ডেস্ক:

বৃষ্টির জন্য বিলম্বে শুরু হয়েছিল ব্লুমফন্টেইন টেস্টের দ্বিতীয় দিন। বৃষ্টি শেষে ম্যাচ শুরু হলে রানের বৃষ্টি ঝরে পরে ব্লুমফন্টেইনে। এই বৃষ্টি ঝড়ান হাশিম আমলা ও ফাফ দু প্লেসিস। এতে অসহায় হয়ে পড়েন বাংলাদেশি বোলাররা। এই দুই ব্যাটসম্যান মিলে নেন তাদের ব্যক্তিগত সেঞ্চুরিও।

সেঞ্চুরি করে যেন আরও ভয়ঙ্কার হয়ে ওঠেন হাশিম আমলা। দ্রুতই এগিয়ে যাচ্ছিলেন দেড়শ রানের দিকে। তবে তাকে তার আগেই থামিয়ে দেন তরুণ পেসার শুভাশীষ রায়, তুলে নেন ইনিংসে তার তৃতীয় শিকারকে।

১১৪তম ওভারের শেষ বলটি লেগ স্ট্যাম্প ছেড়ে সাফল করতে চেয়েছিলেন আমলা। কিন্তু শুভাশীষের করা বলটি আমলা ব্যাটে লাগাতে না পারলে সরাসরি বোল্ড হন। ফলে ১৬৩ বলে ১৩২ রান করেই সাজঘরে ফিরতে হয় আগের টেস্টেও সেঞ্চুরি করা আমলাকে।

আমলা এবং দু প্লেসিস দুজনে মিলে গড়েছিলেন ২৪৭ রানের জুটি। যেটি দক্ষিণ আফ্রিকার এই ইনিংসের সর্বোচ্চ জুটি। এর আগে দুই প্রোটিয়া ওপেনার এলগার ও মার্কারাম করেছিলেন ২৪৩ রানের জুটি।

নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে উইকেটে এসেছেন কুইন্টন ডি কক। তিনি বাউন্ডারি দিয়ে শুরু করেছেন। আর ১২৬ রান নিয়ে ব্যাট করছেন ফাফ দু প্লেসিস। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৫৫২ রান।

এদিকে দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে ব্লুমফন্টেইনের আকাশে হানা দেয় বৃষ্টি। ফলে খেলা শুরু হতে বেশ বিলম্ব হয়। খেলা শুরু হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টায়।

এর আগে প্রথম টেস্টের ন্যায় দ্বিতীয় টেস্টেও টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নেয়ার মাশুল দিচ্ছে বাংলাদেশ। ব্লুমফন্টেইন টেস্টের প্রথম দিনে টাইগার বোলারদের একেবারে হেসে খেলে সামলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। উদ্বোধনী জুটিতে ২৪৩ রান তুলেন ডিন এলগার আর এইডেন মার্করাম। এলগারকে ১১৩ রানে আউট করেন শুভাশীষ রায়।
এরপর দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে মার্করামকে বোল্ড করেন রুবেল হোসেন। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা এই ব্যাটসম্যান আউট হন ১৪৩ রান করে। আর টেম্বা বাভুমাকে ৭ রানে সাজঘরে ফিরিয়ে দ্বিতীয় উইকেটের দেখা পান শুভাশীষ। সূত্র-জাগোনিউজ

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ