আমল কবুল হওয়ার ৪টি শর্ত

আমল কবুল হওয়ার ৪টি শর্ত

ভাগ

আলোকিত কক্সবাজার ডেক্স:

আমল মানে কাজ। মানুষের প্রতিটি ভালো কাজই ইবাদাত। আর আল্লাহ মানুষকে তাঁর ইবাদতের জন্য সৃষ্টি করেছেন। এ আমল কবুল হওয়ার জন্য নূন্যতম ৪টি শর্ত রয়েছে। জাগো নিউজে তা তুলে ধরা হলো-

১. ইলম বা জ্ঞান : যে আমলটি করা হয় তার জ্ঞান থাকা আবশ্যক। অর্থাৎ ইলম ছাড়া আমল বিশুদ্ধ হওয়া কঠিন। আর ঐ আমলই কবুল হয়, যা সহিহ শুদ্ধ হয়।

২. নিয়্যাত : নিয়্যাত ব্যতিত আমল, প্রতিদান প্রাপ্তির যোগ্য নয়। এমন অনেক আমল আছে যা নিয়্যাত ছাড়া কবুলই হয় না। এ প্রসঙ্গে হাদিসে এসেছে- اِنَّمَا الْاَعْمَالُ بِالنَّيَّاتِ অর্থাৎ নিশ্চয় সব আমল নির্ভর করে নিয়্যাতের ওপর। (বুখারি)

৩. সবর বা ধৈর্য : ধৈর্য এবং স্থিরতার সঙ্গে প্রতিটি আমল করতে হবে। নেক আমল করতে গিয়ে বান্দা যে অস্থিরতা সম্মুখীন হয়, তাতে ধৈর্য অবলম্বনের মাধ্যমে আমলে মনোযোগী হওয়া। (১ ও ২নং শর্ত দু`টি আমলের পূর্বেই সম্পন্ন করতে হয়) স্থিরতা এবং ধৈর্য আমল করার সময় অবলম্বন করতে হয়।

৪. ইখলাস তথা একনিষ্ঠতা : ইখলাস ব্যতিত কোনো আমল কবুল হয় না। আমল করার সময় মানুষের একনিষ্ঠতার একান্ত প্রয়োজন। দুনিয়ার সব পেরেশানি থেকে মুক্ত হয়ে শুধু মাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য আমল করতে হয়।

পরিশেষে…
আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা, তিনি যেন প্রত্যেক মুসলমিকে উপরোক্ত বিষয়গুলো যথাযথভাবে পালনের মাধ্যমে নেক আমলের প্রতি মনোযোগী হওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

জাগোনিউজ২৪.কমের সঙ্গে থাকুন। সুন্দর সুন্দর ইসলামি আলোচনা পড়ুন। কুরআন-হাদিস মোতাবেক আমলি জিন্দেগি যাপন করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করুন। আমিন, ছুম্মা আমিন।

ভাগ

কোন মন্তব্য নেই

একটি উত্তর ত্যাগ