শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন

বদির নির্দেশে উখিয়া আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীরের অফিসে হামলা !

বদির নির্দেশে উখিয়া আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীরের অফিসে হামলা !

বিশেষ প্রতিবেদক:

উখিয়া-টেকনাফের সাবেক বিতর্কিত সাংসদ আব্দু রহমান বদির নির্দেশে উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরীকে হত্যার উদ্দেশ্যে অফিসে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২৭ মার্চ) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উখিয়া সদর স্টেশনে অবস্থিত জিএম মার্কেটের তার নিজস্ব অফিসে এ হামলা চালানো হয়। হামলায় অফিসের জানলার কাঁচ ভেঙ্গে যায়। তবে ঔ সময় অফিসে না থাকায় প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন বলে দাবি করেছেন জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে উখিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী বলেন, প্রতিদিনের মতো বুধবারও (২৭ মার্চ) দলীয় নেতাকর্মী ও ইউনিয়নের সাধারণ জনগণের সেবা দিয়ে ঔ দিন রাত বারোটা পর্যন্ত অফিসে ছিলাম। আমি চলে যাওয়ার আধা ঘন্টা পর আমার অফিসের পেছন থেকে হামলা চালানো হয়। তারা হয়তো মনে করেছিলো ঔ সময় আমি অফিসে ছিলাম। কিন্তু ভাগ্যই আমাকে রক্ষা করেছে। তবে আমি বুঝে উঠতে পারছি না তারা কেন আমাকে হত্যা করতে চাই।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, গত ২৬ শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসের এক আলোচনা সভায় সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে আমাকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি দিয়েছিলো বক্তারা।  এ হামলা হয়তো তারই বহিঃপ্রকাশ । আমি বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানিয়েছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হকের বরাত দিয়ে তিনি আরো বলেন, আমাকে হত্যা করা জন্য সাবেক সাংসদ আব্দু রহমান বদি স্থানীয় কিছু সন্ত্রাসীকে ভাড়া করেছেন। গত ২৬ মার্চ সন্ধ্যায় অহিদুল হক চৌধুরী নামে এক সন্ত্রাসী স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হককে ফোনে জানিয়েছে আমার উপর যে কোন সময় হামলা করা হবে। আমার সাথে চলাফেরা না করার জন্য ইউপি সদস্যকে হুমকিও দিয়েছেন তারা। আমি ধারনা করছি এরাই আমাকে হত্যার জন্য হামলা চালিয়েছে।

ইউপি সদস্য আব্দুল হক জানান, ২৬ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে অহিদুল হক চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি আমাকে ফোন করে বলে যে, ‘তোমাকে যেন চেয়াম্যানের সাথে চলাফেরা করতে না দেখি। আমরা যেকোন সময় তার উপর হামলা করবো। সাথে থাকলে তুমিও হামলা থেকে রক্ষা পাবে না। আমি বিষয়টি চেয়াম্যানকে জানানোর পরও তিনি বিষয়টিকে গুরুত্ব দেননি। কিন্তু এর একদিন পর রাতে চেয়াম্যানের অফিসে এ হামলা চালানো হয়। এখন আমরাও নিরাপত্তা হীনতায় পড়ে গেলাম।

উখিয়া থানা পুলিশ পরিদর্শ (তদন্ত) নুরুল ইসলাম জানান, আমি ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে যেটি বুঝেছি, দুর্বৃত্তরা জানালার কাঁচ লক্ষ্য করে ভারী কিছু বস্তু নিক্ষেপ করেছে। লোহার রড় বা ইট জাতীয় কিছু হতে পারে। কারা এ হামলার পেছনে রয়েছে তা তদন্ত করে বের করা হবে। গুলি করার যে অভিযোগ তার কোন আলামত পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় এখনো লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি জানিয়েছে পুলিশের এ কর্মকর্তা আরো জানান, তার প্রতিপক্ষরা গত কয়েকদিন থেকে তাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে আমাদের কাছে মৌখিকভাবে বলেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে জানতে সাবেক সাংসদ আব্দু রহমান বদির ফোনে কল করা হয়। কিন্তু ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আলোকিত কক্সবাজারে ব্যবহৃত সকল সংবাদ এবং আলোকচিত্র বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বে-আইনি। স্বত্বাধিকারী alokitocoxsbazar.com দ্বারা সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY MONTAKIM