পেকুয়ায় ৪৪০ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিলো সেনাবাহিনী

প্রকাশ: ২০১৯-১২-২৯ ০১:১০:৪৮ || আপডেট: ২০১৯-১২-২৯ ০১:১০:৪৮

ওয়াহিদ রুবেল;

কক্সবাজারের পেকুয়ায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১০ পদাতিক ডিভিশনের উদ্যোগে ও সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে চক্ষু শিবিরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার ২৮ ডিসেম্বর পেকুয়ার শীলখালী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত চক্ষু শিবিরে চোখের ছানি পড়া রোগীসহ ৪৪০ জনকে বিনামূল্যে সেবা প্রদান কার হয়।

চট্টগ্রাম লায়ন্স চক্ষু হাসপাতালের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত চক্ষু শিবিরে উপস্থিত ছিলেন ১০ পদাতিক ডিভিশনের সেনা কর্মকর্তাবৃন্দ ও লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল চট্টগ্রাম মেডিকেল টিমের সদস্যবৃন্দ।

দিনব্যাপি পরিচালিত এই চক্ষু শিবিরে রামু সেনানিবাসের সিএমএইচ, ৫৫ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স, ১০১ ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্স ও লায়ন্স হাসপাতাল চট্টগ্রামের মেডিকেল অফিসারদের সমন্বয়ে ৩৮৫ জন রোগীকে বিনামূল্যে আধুনিক চক্ষু চিকিৎসা প্রদান করা হয় এবং ৫৫ জন রোগীকে বিনামূল্যে চোখের ছানি অপারেশনের জন্য চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত করা হয়।

তন্মধ্যে ৩৫ জন রোগীকে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে আগামি ২ জানুয়ারি এবং অবশিষ্ট রোগীদেরকে পর্যায়ক্রমে চোখের ছানি অপারেশনের জন্য চট্টগ্রামের লায়ন্স চক্ষু হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। এ সময় অসচ্ছল ও গরীব রোগীদের মাঝে বিনামূল্যে চোখের ড্রপ, প্রয়োজনীয় ওষুধ ও চশমা বিতরণ করেছে সেনাবাহিনী।

ভবিষ্যতেও সেনা বাহিনীর চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার কক্সবাজার এরিয়া, মেজর জেনারেল মোঃ মাঈন উল্লাহ চৌধুরী।

উল্লেখ্য যে, সমাজের অসহায় ও দুঃস্থ মানুষের চিকিৎসা সেবায় এই বছরে রামু সেনানিবাস কর্তৃক এই অঞ্চলে ৩য় বারের মতো চক্ষু শিবির ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হলো।

ট্যাগ :