নোটিশঃ
যান্ত্রিক  কারনে সাময়িক সমস্যার জন্য আন্তিরকভাবে দুঃখিত - আলোকিত কক্সবাজার পরিবারে যুক্ত থাকায় আপনার কাছে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ
ঈদগাঁওতে মুখ থুবড়ে পড়ে আছে ড্রেনেজ ব্যবস্থা

ঈদগাঁওতে মুখ থুবড়ে পড়ে আছে ড্রেনেজ ব্যবস্থা

এম আবু হেনা সাগর,ঈদগাঁও

সদরের ঈদগাঁও বাজারে দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকার দূর্ভোগে পড়েন ব্যবসায়ীসহ পথচারীরা। ত্রিশ লক্ষ টাকার বাজেটে ড্রেন নির্মান কাজ শুরু না হওয়ায় জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হচ্ছে। যাতে করে,বাজারবাসীর দূর্ভোগ আর দূর্গতি যেন পিছু ছাড়ছেনা।

জানা যায়,ব্যস্তবহুল ঈদগাঁও বাজারের প্রধান ডিসি সড়কের পাশ ঘেষে নির্মিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা থেকেও না থাকায় বাজারে আসা দূর-দূরান্তের লোকজন নানাভাবে অসুবিধায় পড়েছে। ইউনিয়ন ব্যাংক বা বক্তার আহমদ মার্কেটের সামনের স্থানে বিগত কয়েক বছর পূর্বে বর্ষার পানি সুষ্ঠুভাবে চলাচলের লক্ষ্যে ড্রেন নির্মাণ করেছিল। কিন্তু ড্রেনটিতে কতিপয় ব্যবসায়ীরা দোকান পরিষ্কার পূর্বক আবর্জনা ফেলে ভরপুর করে রেখেছে। যাতে ঐ ড্রেনটি দিয়ে বন্যা বা বৃষ্টির পানি যাতায়াত অসম্ভব হয়ে পড়েছে। ড্রেন দিয়ে যথাযথ পানি চলা চল করতে না পারায় বর্ষা মৌসুমে নানা স্থানে নিমজ্জিত থাকে পানি। অথচ ড্রেনেজ ব্যবস্থা থেকেও সঠিক ব্যবস্থাপনার অভাবে এটি বর্তমানে বাজারবাসীর জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। টেকসই ড্রেন নির্মানের দাবী ব্যবসায়ীসহ পথচারীর। এসব বিষয়ে দেখার কেউ না থাকায় হতাশ হয়ে পড়েছেন তারা।

জনগণের চলাচলের ব্যস্ততম এ রাস্তাটির পাশে ভরাটকৃত ড্রেনে ময়লা আবর্জনার ফলে দুর্গন্ধে বিষিয়ে তুলছে পথচারীদেরকে। ড্রেনের উপর বয়ে যাওয়া অধিকাংশ ভরাটকৃত ড্রেনে স্লাব বসিয়ে ব্যবসা বানিজ্য করে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। সমগ্র বাজারের ময়লাযুক্ত পানি ভূমি অফিসের প্রবেশমুখে গিয়ে জমা হয়ে পড়ে। এভাবে দিনের পর দিন ময়লা আবর্জনা যুক্ত পানি জমে থাকার ফলে দূর্গন্ধের সৃষ্টি হচ্ছে। এলাকার পরিবেশ দূষিত হয়ে পড়ছেন।

পথচারী ও যানবাহন চালকরা জানান,বাজারে সঠিক ব্যবস্থাপনার অভাবে এহেন অবস্থার সৃষ্টি। শক্ত হাতে উন্নয়ন কর্মকান্ড করতে হলে সদিচ্ছা ও আন্তরিকতার প্রয়োজন বলে মনে করেন তারা। ডিজি টাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সারাদেশ ব্যাপী উন্নয়নের জোয়ার বয়ে গেলেও বহুল আলোচিত ঈদগাঁও বাজারে পরিকল্পিত ড্রেনেজ নির্মান দীর্ঘদিনেও হচ্ছেনা। যার কারনে, প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে বাজারের ব্যবসায়ীসহ আগত সর্বশ্রেনী পেশার লোকজনকে মরণ দশায় ভোগতে হচ্ছে।

ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী কমিটির আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম ময়লা আবর্জনায় ভরাটকৃত ড্রেনটি সংস্কারের দাবী জানান। যার  গন্ধে বিষিয়ে উঠছে বাজারের পরিবেশ।

জালালাবাদ ইউপির সাবেক সদস্য শামসুল আলমের মতে, ঈদগাঁও বাজারে পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা অতীব জরুরী।

বাজার ইজারাদার কমিটির সদস্য ছৈয়দ করিম জানান,ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদে নিবার্চিত কমিটি না থাকার দরুন বাজার কেন্দ্রীক উন্নয়ন কর্মকান্ড হচ্ছেনা।

বাজারের এক ব্যবসায়ী জানান,বর্ষাকালে ব্যবসা বানিজ্য নিয়ে আতংকে থাকে ব্যবসায়ীরা। কারন পানি দোকানের ভেতর প্রবেশ করে। কবে হবে ড্রেন নিমার্ন এ অপেক্ষায় প্রহর গুনছি।

সদর আ,লীগের উপদেষ্টা মাষ্টার নুরুল আজিম জানান, ঈদগাঁও বাসষ্টেশন থেকে বাজারের দক্ষিন মাথা পর্যন্ত সড়কের দুই পাশে টেকসই ড্রেন নির্মান টেন্ডার হওয়ার পরও কাজ শুরু হচ্ছেনা।

ইসলামাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নুর ছিদ্দিক জানান, অল্প বৃষ্টিতেও বাজারে ভোগান্তির শেষ নেই। যত্রতত্র স্থানে পানিতে সয়লাব হয়ে পড়ে।সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ যদি পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা করে দেয়, তাহলে বাজারের ব্যবসায়ীসহ সর্বসাধারন মহাদূর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আবহাওয়া

COX'S BAZAR WEATHER