শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:১৪ অপরাহ্ন

ঈদগাঁওতে ডিম-মরিচের দাম আকাশচুম্বি

ঈদগাঁওতে ডিম-মরিচের দাম আকাশচুম্বি

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও

জেলা সদরের ঈদগাঁও বাজারে রোজার ঈদের পর থেকে বাড়তে শুরু করে ডিমের দাম। কোনো পণ্যেরই নিদির্ষ্ট নেই মূল্য। এমন অবস্থায় বাজার নিয়ন্ত্রণে কোনো বালাই নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

ডিমের দাম বাড়ার বিষয়ে এক বিক্রেতা জানান, উৎপাদন কম হওয়ায়,বাড়ছে ডিমের দাম। পূর্বে যে পরিমান ডিম উৎপাদন ছিল,বর্তমানে সে পরি মান নেই। বাজারে ডিম বিক্রি হচ্ছে জোড়া ১৮ টাকা। তবে ব্যবসায়ীরা স্বীকার করেন,গেল রমজানে জোড়া প্রতি ডিম ১৪ টাকায় বিক্রি করার কথা।

১৯ জুলাই (শুক্রবার) সকালের দিকে ব্যস্তবহুল বানিজ্যিক উপশহর ঈদগাঁওর কাঁচা বাজার,মাছ বাজার,মুরগী ও মাংস বাজার ঘুরে নিত্যপন্যেসহ  সব খাদ্যসামগ্রীর দ্বিগুন দামের দৃশ্যবলী। কয়েকদিনের ব্যবধানে ১৬০ টাকার কাঁচা মরিচ বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ২শত টাকায়। করলা ৬০, বেগুন ৬০, টমেটো ১৪০, ঢেড়স ৮০,কচু ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আবার পটল, ঝিঙা, মিষ্টিকুমড়া চিচিঙ্গা, পেপে,কচুর লতিসহ সব সবজি বাজারে ভরপুর।

এদিকে ১৮/২০ টাকা দামের পেঁয়াজ এখন ৩৫ / ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বাজারে। রসুন ১৬০টাকা আর আদা বিক্রি হচ্ছে ১২০টাকা দরে।

মাছের বাজারে এখনো নেই কোন সুবাতাস  ঈদগাঁওবাসীর জন্য। চাষ বা নদীর যেকোন মাছ কিনতে গেলেই ক্রেতাদের বাড়তি টাকা গুনতে হচ্ছে। বাজারে তেলাপিয়া প্রতি কেজি ১৪০-১৫০ ১৮০ টাকা,পাঙ্গাস কেজি প্রতি ১২০ /১৩০ টাকা গুইজ্জা ২৮০ /৩০০ টাকা,রুপচাঁদা ৪০০ টাকা ও মাইট্যা মাছ ৪শত টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

গরু ও খাসির মাংসের দাম আছে অপরিবর্তিত।  ফার্ম মুরগী কেজি প্রতি ১২০ টাকা, লাল দেশী ২৬০ টাকা,মাদার মুরগী ২০০ টাকা এবং গরুর মাংস ৫শত / সাড়ে ৫শত টাকা ও হাসির মাংস ৭শত টাকায় বিক্রি করছে বিক্রেতারা।

বৃহত্তর ঈদগাঁওর প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের অসহায় ও সাধারন লোকজনরা জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক সময়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী দাম বৃদ্বিতে বিপাকে পড়েছে নিন্মবৃক্ত আয়ের লোকজন। বাজার মনিটরিংয়ের দাবী জানান তারা।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আলোকিত কক্সবাজারে ব্যবহৃত সকল সংবাদ এবং আলোকচিত্র বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বে-আইনি। স্বত্বাধিকারী alokitocoxsbazar.com দ্বারা সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY MONTAKIM